টেক নিউজ

Aadhar UIDAI – আধার কার্ড লিংক করানোর সময় আরো 1 বছর বাড়লো, কার্ড লিংক করার 4 টি পদ্ধতি দেখুন।

Adv

বর্তমানে আধার কার্ড (Aadhar UIDAI) সাধারণ মানুষের পরিচয়পত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তাই ইতিমধ্যেই সরকারের তরফে এই কার্ডের সঙ্গে অন্যান্য কার্ডগুলিও লিংক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু অনেকেই জানেন না আধার কার্ডের (Aadhar UIDAI) সঙ্গে লিংকের সময়সীমা আরো ১ বছর বাড়ানো হয়েছে। পাশাপাশি এই লিংক করানোর জন্য দিতে হবে কোনো ফাইনও। অর্থাৎ ৩১ মার্চ, ২০২৩ শেষ তারিখ নয়। তাই কার্ডে তথ্যের কোনোপ্রকার সমস্যা থাকলে তা সহজেই ঠিক করিয়ে এই লিংক করা যাবে।

Aadhar UIDAI এর সঙ্গে ভোটার কার্ড কীভাবে লিঙ্ক করবেন দেখুন।

তাছাড়া আজকাল কার্ড লিংক করানোর জন্য কোনো সাইবার ক্যাফেতে যেতে হয় না। বরং বাড়িতেই খুব সহজে করে ফেলা সম্ভব। কিভাবে চলুন জেনে নেওয়া যাক। প্রসঙ্গত, এই প্রতিবেদনে আধার (Aadhar UIDAI) এবং ভোটার কার্ড লিংকের বিষয়ে জানানো হচ্ছে। এমন অনেকেই রয়েছেন, যাদের এখনও পর্যন্ত ভোটার কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিংক করা নেই। বর্তমানে আধার (Aadhar UIDAI) এবং প্যান কার্ড লিংকের সময়সীমা আগামী ৩১ মার্চ করা হয়েছিল। অর্থাৎ হাতে রয়েছে ৩ দিন।

Ad

এরপর এই সময়সীমা আর বাড়বে না। তেমনই সঠিক সময়ের মধ্যে এই কার্ড দুটিও লিংক না করালে সমস্যায় পড়বেন কার্ড হোল্ডারেরা। ভোটার কার্ড দেশের নাগরিত্বের পরিচয় প্রদান করে। স্থায়ী বাসিন্দা হিসেবে অন্য কোনো প্রমাণপত্র না থাকলে এই কার্ড তা প্রমান করে, তাই যত শীঘ্র সম্ভব এই পদ্ধতিতে লিংক করিয়ে ফেলুন। দেখে নিন পদ্ধতি।

এবার শনি রবিবারেও খোলা থাকবে সমস্ত ব্যাংক, মিলবে 24 ঘন্টা পরিষেবা, RBI এর ঘোষণায় খুশি দেশবাসী।

অনলাইনে লিংক করার পদ্ধতি-
১) NVSP এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে।
অফিশিয়াল ওয়েবসাইট-
https://www.nvsp.in/
এরপর ‘ফর্ম’ এ ক্লিক করতে হবে।
২) রেজিস্টার হয়ে গেলে আবেদনকারীর নাম, পাসওয়ার্ড এবং ক্যাপচা কোড লিখে ‘লগইন’ ক্লিক করতে হবে। আর যদি রেজিস্টার না হয়ে থাকে, ‘Don’t have account, Register as a new user’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর মোবাইল নম্বর, ক্যাপচা কোড লিখে ‘ওটিপি পাঠান’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। এছাড়া দিতে হবে প্রয়োজনীয় তথ্য (OTP, EPIC নম্বর, পাসওয়ার্ড ইত্যাদি। তারপর ‘রেজিস্টার’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৩) ‘ফর্ম 6B’ এ ক্লিক করতে হবে। রাজ্য এবং আবেদনকারীর বিধানসভা/সংসদীয় নির্বাচনী এলাকা নির্বাচন করতে হবে।
৪) ব্যক্তিগত তথ্য (OTP, আধার নম্বর ইত্যাদি) দিয়ে ‘প্রিভিউ’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। তারপর ‘জমা দিন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।
৫) আবেদনকারীর আবেদন ট্র্যাক করার জন্য একটি রেফারেন্স নম্বর দেওয়া হবে।
SMS এর মাধ্যমে কিভাবে লিংক করানো যাবে?
তার জন্য এই পদ্ধতি মেনে সঠিকভাবে মেসেজ পাঠাতে হবে।
ECILINK দিয়ে 166 বা 51969 নম্বরে একটি SMS পাঠাতে হবে।

অফলাইনে আধার (Aadhar UIDAI)ও ভোটার কার্ড লিংক করার পদ্ধতি-
নিজ এলাকার বুথ লেভেল অফিসারের (BLO) কাছে একটি আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। আবেদনপত্রে দেওয়া তথ্য BLO এর মাধ্যমে ভেরিফাই করা হবে। তারপর এটি রেকর্ডে তোলা হবে। তবেই কার্ড দুটি লিংক করা যাবে।

এরপর আবেদনকারীর EPIC নম্বর লিখে NVSP ওয়েবসাইট ওপেন করে নিজ জায়গার BLO/নির্বাচন কর্মকর্তাদের খুঁজে পেতে হবে।
আরো একটি পদ্ধতি হল Voters’ হেল্পলাইন-
১) এর মাধ্যমে লিংক করাতে হলে গুগল প্লে স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে ভোটার হেল্পলাইন অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে।
২) ‘ভোটার নিবন্ধন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।
৩) ‘নির্বাচনী প্রমাণীকরণ ফর্ম (ফর্ম 6B)- এ ক্লিক করে ‘চলো শুরু করুন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৪) আধার কার্ডের সাথে রেজিস্টার করা মোবাইল নম্বরটি দিতে হবে। একটি OTP পাঠানো হবে। তা সঠিকভাবে লিখে ‘যাচাই করুন’বাটনে ক্লিক করতে হবে।
৫) ‘হ্যাঁ আমার ভোটার আইডি আছে’ বাটনে ক্লিক করে ‘পরবর্তী’ তে ক্লিক করতে হবে।
৬) ভোটার আইডি নম্বর (EPIC) এবং অন্যান্য তথ্য দিতে হবে।
৭) ‘প্রোসিড’ বাটনে ক্লিক করার পর আধার নম্বর, নিবন্ধিত মোবাইল নম্বর ইত্যাদি তথ্য দিতে হবে। এরপর ‘সম্পন্ন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।

ইনকাম ট্যাক্স বাঁচানোর 5টি সহজ উপায়, আয়কর ও বাঁচবে, টাকাও বাড়বে।

৮) পূর্বে দেওয়া তথ্য আবারও ভেরিফাই করে ঠিক আছে কিনা দেখতে হবে।
৯) ফর্ম 6B জমা দেওয়ার জন্য ‘নিশ্চিত করুন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। তবেই
আবেদনকারীর ভোটার আইডির সঙ্গে আধার কার্ড লিংক হয়ে গেছে কিনা তা জানতে রেফারেন্স নম্বর পাওয়া যাবে।
Aadhar UIDAI সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(105) ""