প্রকল্প

Mahila Samman Yojana – প্রত্যেক মহিলা পাবেন আরো 1000 টাকা। আবেদন করুন মুখ্যমন্ত্রী মহিলা সম্মান যোজনা প্রকল্পে।

Adv

রাজ্যের মহিলাদের স্বাবলম্বী করার জন্য Mahila Samman Yojana বা মুখ্যমন্ত্রী মহিলা সম্মান যোজনা প্রকল্প শুরু করা হয়েছে। রাজ্য সরকার হোক বা কেন্দ্র সব সরকারই ভোটের আগে নাগরিকদের জন্য নতুন প্রকল্প (New Govt Scheme) নিয়ে আসছে ভোটের ময়দানে টিকে থাকার জন্য। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (WB CM Mamata Banerjee) তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর চালু করেছিল লক্ষ্মীর ভাণ্ডার (Lakshmir Bhandar).

Mukhyamantri Mahila Samman Yojana 2024.

লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প চালু হওয়ার পর থেকে ধীরে ধীরে এই প্রকল্প খুব জনপ্রিয় হয়েছে। এই প্রকল্প পুরস্কারও পেয়েছে অনেক। রাজ্য সরকারের এই লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প জনপ্রিয় হওয়ার পর দেশের অনেক রাজ্য এই প্রকল্পের আদলে প্রকল্প তৈরি করেছে মহিলাদের জন্য। দিল্লির আম আদমি পার্টি (Aam Aadmi Party) সরকারও লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পে অনুপ্রাণিত হয়ে মহিলাদের জন্য একটি প্রকল্প চালু করেছে যে প্রকল্পের মাধ্যমে মহিলাদের প্রতিমাসে 1000 টাকা করে দেওয়া হবে (Mahila Samman Yojana).

Ad

এই নতুন প্রকল্পের নাম রাখা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মহিলা সম্মান যোজনা (Mukhyamantri Mahila Samman Yojana 2024). এই প্রকল্পের (Govt Scheme) ব্যাপারে আরো বিস্তারৎ জেনে নিন। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের (Government Of West Bengal) লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের কথা সবাই জানে। চলতি বছর বাজেট পেশের দিন লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের ভাতার পরিমান বাড়ানোর কথা ঘোষনা করে পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী।

আগে এই প্রকল্পের আওতায় সুবিধাভোগীরা পেত 500 থেকে 1000 টাকা করে। এবার থেকে তারা পাবে 1000 থেকে 1200 করে। দিল্লি সরকার আম আদমি পার্টির পক্ষ থেকে সোমবার বাজেট পেশ করা হয়েছে। 76 হাজার কোটি টাকার বাজেট পেশ করা হয়েছে। তারা দিল্লীতে রাম রাজ্যের দৃষ্টিভঙ্গি দ্বারা অনুপ্রাণিত বলে দাবী করেছে বনেত পেশের দিন ‘মহিলা সম্মান যোজনার’ (Mahila Samman Yojana) অধীনে থাকা সব মহিলাদের জন্য 1000 টাকা করে প্রত্যেক মাসে টাকা দেওয়া হবে বলে ঘোষনা করা হয়েছে।

নারীদের ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Delhi CM Arvind Kejriwal) এই পদক্ষেপকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করেছেন। এই Mahila Samman Yojana অধীনে 18 বছর বা তার বেশি বয়সী মহিলারা প্রতি মাসে 1000 টাকা পাবেন। দিল্লী সরকার (Government Of New Delhi) এই প্রকল্পের জন্যে বরাদ্দ করেছে 2 হাজার কোটি টাকা। পরিসংখ্যান অনুযায়ী দিল্লীতে আছে প্রায় 67 লক্ষ মহিলা। তার মধ্যে 45 থেকে 50 লক্ষ মহিলা এই Mahila Samman Yojana সুবিধা পাবেন।

আয়কর প্রদানকারি এবং অন্য প্রকল্পের আওতায় থাকা মহিলা আর সরকারি বা বেসরকারি চাকরিজীবি মহিলারা এই Mahila Samman Yojana আওতায় আসতে পারবে না। এই প্রকল্প ঘোষণার সময় দিল্লীর অর্থমন্ত্রী অতিশী বলেছেন যে সব মহিলারা এই প্রকল্পে যোগ্য তাদের একটি ফর্ম পূরণ করতে হবে। এই ফর্মে উল্লেখ থাকবে স্বঘোষিত একটি বয়ান। যেখানে সুবিধাভোগী মহিলা স্বীকার করবেন তিনি কোন রকম সরকারি প্রকল্পের অংশীদার নন।

Drone Didi Yojana (ড্রোন দিদি যোজনা)

তিনি একজন সরকারি কর্মচারী ও নন এবং তার পাশাপাশি তিনি আয়কর প্রদানকারী নন। আর এই ফর্মের ভিত্তিতেই তার আধার কার্ড এবং ব্যাংক একাউন্টের সব নথি খতিয়ে দেখা হবে। তারপরে সব ঠিকটাক থাকলে Mahila Samman Yojana এর মাধ্যমে একাউন্টে প্রতি মাসে টাকা দেওয়া হবে। তবে এই প্রকল্পের সুবিধা কবে থেকে চলু করা হবে সে ব্যাপারে কিছু বলেনি দিল্লী সরকার।

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে আরো 200 টাকা বাড়লো। নবান্নের নোটিশ দেখে নিন।

আর এই নতুন Mahila Samman Yojana প্রকল্পের সুবিধা শুধুমাত্র ভারতের রাজধানী রাজ্য নিউ দিল্লীর সকল মহিলাদের জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। এটি কোন নতুন প্রকল্প নয় কিন্তু আগামী লোকসভা ভোটের আগে দিল্লী সরকারের তরফে এই প্রকল্প নিয়ে আসার মাধ্যমে নিজেদের ভোটের ময়দানে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছে আম আদমি পার্টি। এমনটাই মনে করছেন অনেকে।
Written by Ananya Chakraborty.

পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত কৃষক বন্ধুদের একাউন্টে টাকা দিচ্ছে মমতা। এই ফর্ম জমা করলেই টাকা পাবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(102) ""