স্কলারশিপ

Ambani Scholarship সকল পড়ুয়াদের দিচ্ছে 41 হাজার টাকা স্কলারশিপ, জেনে নিন আবেদন পদ্ধতি।

Adv

Ambani Scholarship এ আবেদন করুন। অতিমারীর আবহ বজায় থাকলেও এই বছর অফলাইনে অর্থাৎ পরীক্ষাকেন্দ্রেই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। গত ২৭ মার্চ পরীক্ষার শেষ দিন ছিল। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার পর পড়ুয়াদের স্বপ্ন থাকে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের। কিন্তু সেই স্বপ্ন সকলে পূরণ করতে পারেন না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এর কারণ হয়ে থাকে আর্থিক পরিস্থিতি। তাই পড়ুয়াদের আর্থিকভাবে সাহায্য করতে সরকারি বেসরকারি একাধিক স্কলারশিপ চালু করা হয়েছে। উচ্চমাধ্যমিক পাশেই সেইসকল স্কলারশিপগুলিতে করা যাবে আবেদন। আজকে সেকরমই একটি স্কলারশিপ সম্পর্কে জানানো হবে। তাতে আবেদন জানালে পড়ুয়ারা পাবেন ২ থেকে ৫ বছরের জন্য আর্থিক সাহায্য।

Ambani Scholarship apply now.

স্কলারশিপের নাম-
আম্বানি স্কলারশিপ (Ambani Scholarship).
Ambani Scholarship এ আবেদনের শর্তাবলী-
১) আবেদনকারীকে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করে স্নাতক কোর্সে বা ডিপ্লোমা কোর্সে পাঠরত হতে হবে।
২) বার্ষিক আয় ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকার মধ্যে হতে হবে।
উল্লেখ্য, প্রতিবন্ধী আবেদনকারীদের আয়ের কোনো উর্ধ্বসীমা নেই ।
৩) সংশ্লিষ্ট বোর্ডের পরীক্ষায় ১ থেকে ১৫ নম্বর ৱ্যাঙ্কের মধ্যে থাকতে হবে। তবে গুজরাট, মহারাষ্ট্র ও গোয়া রাজ্যের পড়ুয়াদের সংশ্লিষ্ট বোর্ডের পরীক্ষায় ১ থেকে ১০ মধ্যে র‍্যাংক হতে হবে।
৪) CBSE বা রাজ্যের যেকোনো স্বীকৃতপ্রাপ্ত বোর্ডের অধীন পড়াশোনা চালাতে হবে।

Ad

বয়সসীমা-
৩০ এপ্রিল, ২০২৩ তারিখ অনুযায়ী আবেদনকারীর বয়স ২০ বছরের মধ্যে হতে হবে।
বৃত্তির অঙ্ক-
এই স্কলারশিপে নির্বাচিত আবেদনকারীদের স্নাতক কোর্সে পড়াশুনা করার জন্য ৩/৪/৫ বছরের জন্য আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হবে।তবে বিভিন্ন কোর্স অনুযায়ী বৃত্তির অঙ্ক আলাদা হয়ে থাকে।
বিজ্ঞান (Science)/ কলা (Arts)/ বাণিজ্য (Commerce)/ আইন (Law)/ B.Ed- ১২, ৫০০ টাকা। সময়- ২ বছর থেকে ৫ বছর। বায়োটেকনোলজি (Biotechnology)/ কম্পিউটার সায়েন্স (Computer Science)/ মিডিয়া স্টাডিজ (Media Studies)/ ম্যানেজমেন্ট (Management) – ১৮, ৫০০। সময়- ৩ বছর থেকে ৪ বছর।

কৃষি (Agriculture) / ফার্মেসি (Pharmacy) – ১৯, ০০০। সময়- ৪ বছর।
ইঞ্জিনিয়ারিং( Engineering)- ৩৬, ০০০ টাকা। সময়- ৪ বছর।
চিকিৎসা বিজ্ঞান (Medical Science) – ৪১, ০০০ টাকা। সময়- ৫ বছর।
Ambani Scholarship এ আবেদন পদ্ধতি-
রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের তরফে মেরিট লিস্ট বা মেধাবী তালিকায় থাকা যোগ্য আবেদনকারীদের একটি আবেদনপত্র পাঠানো হয়। সেই আবেদনপত্রে স্কলারশিপে অনলাইনে আবেদন করার জন্য login id ও পাসওয়ার্ড দেওয়া থাকে। ঠিক ২ মাসের মধ্যে এই আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হয়। এই স্কলারশিপে আবেদনের জন্য প্রথমে স্কলারশিপ-এর নির্দিষ্ট অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপে আবেদন পদ্ধতির বদল, দেখে নিন নতুন আবেদন পদ্ধতি, কত টাকা পাবেন, কীভাবে?

এরপর login id এবং পাসওয়ার্ড সহযোগে sign ইন করতে হবে। একটি আবেদনপত্র দেখা যাবে। আবেদনের শর্তাবলী ভালোভাবে পড়ে নথিপত্র সহযোগে ওই আবেদনপত্রটি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে। এরপর submit করতে হবে। আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথিপত্রগুলি নির্দিষ্ট ফরম্যাটে স্ক্যান করতে হবে। আবেদনের জন্য কোনো আবেদন ফি লাগবে না।

আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথিপত্র-
১) উচ্চমাধ্যমিক পাশের মার্কশীট এবং সার্টিফিকেট।
২) বয়সের প্রমাণপত্র হিসেবে আধার কার্ড/ জন্ম শংসাপত্র বা বার্থ সার্টিফিকেট।
৩) ইনকাম সার্টিফিকেট।
৪) PH সার্টিফিকেট (যদি থাকে)।
৫) আবেদনকারীর নিজস্ব ব্যাংকের বইয়ের প্রথম পাতার জেরক্স।
৬) সাম্প্রতিক তোলা পাসপোর্ট সাইজ রঙিন
ফটো।

রিলায়েন্স স্কলারশিপে আবেদন করে পেয়ে যান বার্ষিক পড়াশুনার খরচ ও অন্যান্য সুবিধা।

আবেদনের সময়সীমা-
প্রতি বছর মে থেকে জুন মাসের মধ্যে (CBSE ও রাজ্যের বোর্ডগুলির ফলাফল প্রকাশের সময়)।
আবেদনের জন্য রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ফলো করতে হবে।
অফিশিয়াল ওয়েবসাইট লিংক-
https://www.scholarships.reliancefoundation.org/
স্কলারশিপ সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(108) ""