পশ্চিমবঙ্গের খবর

গরমের ছুটি কাটতেই প্রত্যেক স্কুলে জরুরী নির্দেশ, শিক্ষক ও ছাত্রদের মানতে হবে।

Adv

গত 15 জুন (বৃহস্পতিবার) খুলেছে রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুলগুলি। প্রায় টানা দেড় মাস গরমের ছুটি (Summer Vacation) ছিল স্কুলগুলিতে। তাই স্বাভাবিকভাবেই পঠন পাঠনের ক্ষতি হয়েছে। আগামী বছর আরো এগিয়ে আনা হয়েছে মাধ্যমিক (Madhyamik Pariksha) ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা (HS Exam). পড়ুয়াদের পরীক্ষার সিলেবাস কিভাবে শেষ করানো যাবে? আদৌ কী শেষ করানো সম্ভব হবে? ইতিমধ্যেই এই সমস্ত প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে শিক্ষকদের মনে? এবার এই সমস্যা সমাধানে নেওয়া হল একটি বিশেষ সিদ্ধান্ত। যাতে সম্মতি জানালেন খোদ রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী।

গরমের ছুটির পর শুরু হলো ক্লাস।

গত মাসের শুরু থেকেই তাপমাত্রা 40 ডিগ্রি সেলসিয়াস পেরিয়ে গিয়েছিলো। প্রচন্ড গরমে প্রায় নাজেহাল অবস্থা হয়েছিল সকলেরই। সারাদিন বাড়ির বাইরে নানা কাজ, অফিসের চাপ সহ্য করে বাড়িতে এসেও যেন গরমে অস্থির হওয়ার জোগাড় হয়েছিল রাজ্যবাসীর। কবে আবহাওয়ার উন্নতি হবে? এই প্রশ্নই কার্যত ছিল সকলের। এই অবস্থায় পড়ুয়ারা যাতে অসুস্থ না হয়ে পড়ে, স্কুল ছুটির তালিকার নির্দিষ্ট সময়ের আগেই রাজ্য সরকারের নির্দেশে দেওয়া হয়েছিল গরমের ছুটি (Summer Vacation).

Ad

গরমের ছুটি শেষে খুললো স্কুল, বাতিল হচ্ছে শনিবারের ছুটি, সপ্তাহে কত দিন ক্লাস হবে? জানুন বিস্তারিত।

সেইমতো গত 2 মে পড়েছিল গরমের ছুটি। এরপর 5 জুন ও 7 জুন রাজ্যের হাইস্কুল এবং সরকারি প্রাইমারি স্কুল ও সরকার নিয়ন্ত্রিত প্রাইমারি স্কুলগুলি খোলা নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি হলেও মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে সেই সময়সীমা আরো 10 দিন বাড়ানো হয়েছিল। গত বৃহস্পতিবার স্কুল খুললেও, পরীক্ষার সিলেবাস কী শেষ করানো সম্ভব হবে? চিন্তায় শিক্ষক মহল। এর আগে অবশ্য মধ্যশিক্ষা পর্ষদের তরফে জানানো হয়েছিল, পড়ুয়াদের অতিরিক্ত ক্লাস নিয়ে শেষ করতে হবে সিলেবাস।

সেইমতো অনেক স্কুল শনিবার পুরোদমে ক্লাস নেওয়ার চিন্তাভাবনা করছিল। এই নিয়ে শিক্ষক মহলেও আলোচনা হছিলো। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, এই সিদ্ধান্তে সম্মতি দিয়েছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। এমনিতেই শনিবার রাজ্যের সরকারি এবং সরকার নিয়ন্ত্রিত স্কুলগুলিতে হাফ ছুটি দেওয়া হয়। যেহেতু লোকসভা ভোটের কারণে আগামী বছর মাধ্যমিক থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা এগিয়ে আনা হয়েছে। তার আগে রয়েছে আরো কয়েকটি পরীক্ষা।

ফের বাড়লো গরমের ছুটি, স্কুল খুললেই শিক্ষক ও ছাত্রদের মানতে হবে এই নিয়ম, তালিকা দখুন।

দ্বিতীয় সামেটিভ পরীক্ষা সামনেই। শিক্ষা দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, আগস্টের শুরুতেই এই পরীক্ষা নিতে হবে। হাতে মাত্র মাস খানেকের একটু বেশি সময়। পড়ুয়াদের এর মধ্যেই তৈরি হতে হবে পরীক্ষার জন্য। তাছাড়া রয়েছে প্রিটেস্ট ও টেস্ট পরীক্ষাও। তাই পড়ুয়াদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে এবং সিলেবাস শেষ করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শীঘ্রই এই নিয়ে স্কুলগুলির তরফে ছাত্র-ছাত্রীদের জানানো হবে।
শিক্ষা সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।
Written by Manika Basak.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(109) ""