গুরুত্বপূর্ণ খবর

E Shram Card – এই কার্ড থাকলেই প্রতিমাসে 3000 টাকা পাবেন। কারা ও কিভাবে এই কার্ড পাবেন?

Adv

আর কিছুদিনের মধ্যেই লোকসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা হতে চলেছে। তার আগেই E Shram Card বা ই শ্রম কার্ড নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। প্রধানমন্ত্রী 2014 সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে অনেক জনমুখী প্রকল্প চালু করেছে যেমন -উজ্জ্বলা যোজনা (Ujjwala Yojana 2024), আয়ুষ্মান ভারত যোজনা (Ayushman Bharat Yojana 2024), রোজগার মেলা (Rojgar Mela 2024), কিষান যোজনা (PM Kisan Yojana 2024) ও আরো অনেক।

E Shram Card Registration Process Online.

সামনেই লোকসভা ভোট আর এই জন্যে আরো নতুন নতুন অনেক প্রকল্প চালু করেছেন পুরনো প্রকল্প গুলোর ভাতা বাড়িয়েছেন মোদী সরকার (Modi Government). মোদী সরকারের চালু করা বিভিন্ন প্রকল্প গুলোর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য একটি হল E Shram Card. নতুন বছরের শুরুতেই এই কার্ড নিয়ে বড় খবর পাওয়া গিয়েছিল। এই কার্ড এর জন্যে যে সকল শ্রমিক শ্রেনীর মানুষ নিজেদের নাম নথিভুক্ত করেছেন বা আগামী দিনে করবেন তাদের প্রতি মাসে নগদ 3000 টাকা দেবে কেন্দ্র সরকার (Central Government).

What Is E Shram Card?

E Shram Card চালু করার মুল উদ্দেশ্য হল যারা অসংগঠিত ক্ষেত্রে কাজ করেন, যারা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী যাদের কোনো নির্দিষ্ট রোজগার নেই তাদের ভবিষৎ এর নিরাপত্তার জন্যে এই প্রকল্প চালু করেছে সরকার। 16 বছর বয়স হলেই এই প্রকল্পে আবেদন করা যায়। আর 60 বছর বয়স হলে পাওয়া যায় 3000 টাকা পেনশন (Pension). এখনো পর্যন্ত দেশের মোট 20 কোটি মানুষ ই শ্রম কার্ডে নাম নথিভুক্ত করেছেন।

যার মধ্যে 2 কোটি মানুষকে সুবিধা দিয়েছে সরকার। 2021 সালের আগস্ট মাসে এই প্রকল্প চালু করেছিল কেন্দ্র সরকার। আর দেশের শ্রমজীবী মানুষদের জন্য এই কার্ড আনার মাধ্যমে এই সকল মানুষের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত হতে চলেছে। আর অনেক মানুষই এর মাধ্যমে নিজেদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে পেরেছে এবং ভবিষ্যতেও করতে চলেছে।

E Shram Card Benefits

1) এই কার্ড এর মাধ্যমে যাদের কোনো স্থায়ী রোজগার নেই তারা 60 বছর বয়স হলেই প্রতি মাসে 3000 টাকা করে পেনশন পাবেন।
2) এই কার্ড সারা ভারতে যেকোনো প্রান্তে গ্রাহ্য হয়।
3) এই কার্ড এর আওতায় থাকা কোন ব্যক্তি যদি দুর্ঘটনা জনিত কারণে নিজের প্রাণ হারান বা পূর্ণাঙ্গ ভাবে বিকলাঙ্গ হয়ে পড়েন তবে তার পরিবারকে 2 লক্ষ টাকা বীমা প্রদান করা হয়।সেই ব্যক্তি যদি আংশিক আহত হন তাহলে 1 লক্ষ টাকা বীমা (1 Lakh Rupees Insurance) পায়।

4) সেই সাথে আই পরিবারের ছেলে মেয়েদের বিনামূল্যে বাই সাইকেল, সেলাই মেশিন ইত্যাদি দেওয়া হয়।
5) এছাড়া UAN নম্বর সহ আরো কিছু সুবিধা দেওয়া হয়।
6) E Shram Card এর আওতায় থাক ব্যক্তিরা প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ও সুবিধা পেয়ে থাকেন। যার মাধ্যমে কারোর যদি পাকা বাড়ি বা নির্দিষ্ট বাসস্থান না থাকে সেটি বানিয়ে দেওয়ার জন্য টাকা দেয় সরকার।

7) যদি কোন গর্ভবতী মহিলার E Shram Card থাকে এবং তিনি কাজ করতে সক্ষম না হন, সেই পরিস্থিতিতেও সরকার ওই মহিলার পরিবারকে নিয়মিতভাবে প্রতিমাসে বেতন প্রদান করে।
8) এই E Shram Card এর মাধ্যমে আবেদনকারীরা তাদের পড়াশোনার জন্য অর্থ সাহায্য পাবেন।
9) আগামীদিনে এই নিয়ে আরও কোন ঘোষণা হতে পারে এই নিয়ে বলেই মনে করছেন অনেকে।

E Shram Card Apply Criteria And Documents

যারা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, ভাগ চাষ বা অন্যান্য অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মী তাদেরই এই সুবিধা দেওয়া হয়। আর যারা নিয়মিত আয়কর জমা দেন তারা আবেদন করতে পারবেন না। আবেদনকারী EPFO কিম্বা ESIC এর মেম্বার হলে এই E Shram Card সুবিধা নিতে পারবেন না। এই প্রকল্পে সর্বনিম্ন 16 বছর এবং সর্বোচ্চ 59 বছর বয়স সীমা আবেদন করতে পারবেন। এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্যে Aadhaar Card, এক কপি পাসপোর্ট সাইজ ফোটো, PAN Card, Bank Account আর বৈধ মোবাইল নম্বর লাগবে।

Mahila Samman Yojana (মহিলা সম্মান যোজনা ২০২৪)

E Shram Card Online Apply Process

1) প্রথমে E Shram Card এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
2) পেজের ডান পাশে থাকা New Registration বাটানে ক্লিক করুন।
3) ‘Registration On E Labour অপশন নির্বাচন করুন।
4) এরপর আপনার বৈধ মোবাইল নম্বরটি এন্টার করুন যেটিতে আধার নম্বর সংযুক্ত আছে।

এই ফর্ম জমা করলে একাউন্টে টাকা ঢুকবে।

5) Send OTP তে ক্লিক করুন। OTP লিখে Submit বাটনে ক্লিক করলে নতুন পেজ ওপেন হবে।
6) এখানে একটি আবেদন পত্র দেখা যাবে। সেটিতে আপনার ব্যক্তিগত, কাজের এবং ব্যাংকের বিবরণ সঠিক ভাবে লিখতে হবে।
7) এরপর Submit বাটন প্রেস করলেই আবেদন শেষ।
Written by Ananya Chakraborty.

বেকার ছেলে মেয়েদের 5 লাখ টাকা দিচ্ছে রাজ্য সরকার। এইভাবে আবেদন করলে ভোটের আগে টাকা পাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(101) ""