সোনার দাম

Gold Price – সোনার দাম 17000 টাকার কমে পাবেন, দারুণ সুযোগ গল্প নয় সত্যি খবর।

Adv

সোনার অলংকারের কোনো বিকল্প হয় না আর তেমনই সোনার দাম বা Gold Price এরও কোন বিকল্প হয়না। কারণ সোনা শুধু একটা মূল্যবান ধাতু নয়, সোনা এই মুহূর্তে একটা বিনিয়োগের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম (Gold for Investment) সোনায় বিনিয়োগকারীর সংখ্যা ইতি মধ্যেই দিনের পর দিন বেড়ে চলেছে। এমনিতেই বিয়েবাড়ি থেকে শুভ অনুষ্ঠান, সমস্ত ক্ষেত্রেই সোনার প্রয়োজন চিরকালীন। আর সোনাকে শুভ ধাতু হিসেবেই বিবেচনা করা হয়ে থাকে। ফলে সোনার কদর সবসময়ই রয়েছে।

Gold Price Will Decrease In Indias Neighbour Country Bhutan.

আর যেহেতু এই মুহূর্তে বিনিয়োগের একটা গুরুত্বপূর্ণ জায়গা হয়ে উঠেছে সোনা, ফলে সোনা কেনার আগ্রহ মানুষের মধ্যে আরো বেড়ে চলেছে। এরমধ্যে ভারতবর্ষে সোনার দাম (Gold Price) ৬০ হাজার টাকার সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছে। তবে এর থেকে অনেক কম দামে সোনা কিনতে পারেন। ভারতে সোনার যা দাম রয়েছে, তার থেকে অন্তত ১৭ হাজার টাকার কমে সোনা কিনে (Gold can buy Cheapest Rate) নিতে পারবেন। কিন্তু কিভাবে কিনতে পারবেন সেই সোনা (Gold) এবার দেখে নেওয়া যাক।

Ad

ভারতবর্ষের (India) প্রতিবেশী দেশ ভুটানে (Bhutan) খুব সস্তায় কিনতে পারবেন সোনা। কারণ ভুটান সরকার (Government Of Bhutan) ইতি মধ্যেই ঘোষণা করেছে তারা ট্যাক্স ফ্রী সোনা (Tax Free Gold) বিক্রি করছে। ফেব্রুয়ারি মাসে ভুটান সরকারের তরফে নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয়, সেই দেশে ট্যাক্স ফ্রী সোনা বিক্রি (Gold Price) শুরু করা হবে। যার ফলে শুধু ভুটানের জনগণ নয়, তার পাশাপাশি অন্যান্য দেশের পর্যটকেরাও সুবিধা পাবেন।

এবার ভুটানের সঙ্গে ভারতের সোনার দাম এর ফারাক কতটা হতে পারে? যেখানে ভারতে রবিবার ৬ আগস্ট এর বাজার দর অনুযায়ী ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ছিল ৬০ হাজার ১৬০ টাকা, সেখানে এই মুহূর্তে ভুটানে ২৪ ক্যারেট ১০ গ্রাম সোনার দাম কম বেশি ৪৩ হাজার ৪৭৩ টাকা। ফলে পার্থক্য প্রায় ১৭ হাজার টাকার অর্থাৎ ভারত থেকে ১৭ হাজার টাকার কম দামে (Gold Price) ভুটান থেকে সোনা কেনা যাবে।

RBI (রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া)

একজন ভারতীয় (Indian) কতটা পরিমাণ সোনা ভুটান থেকে কিনতে পারবেন? সেক্ষেত্রে একজন ভারতীয় পুরুষ ভুটান থেকে ৫০ হাজার টাকা সোনা (Gold Price) এবং একজন ভারতীয় মহিলা ১ লক্ষ টাকা মূল্যের সোনা (প্রায় ৪০ গ্রাম) Tax Free কিনে ভারতে নিয়ে আসতে পারবেন। এবারে জানুন কিভাবে যাবেন ভুটান?

Jio Recharge – মধ্যবিত্তের জন্য সস্তার প্ল্যান চালু, অর্ধেক দামে সারামাস সবকিছু ফ্রি।

ভুটান যাওয়ার জন্য সরাসরি রেল যোগাযোগ না থাকলেও হাসিমারা বা নিউ আলিপুরদুয়ার স্টেশন থেকে রেলপথে ভুটানের সীমান্তবর্তী স্টেশন ফুয়েন্টশোলিংয়ে যেতে পারেন। এছাড়াও আকাশপথে পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়ি থেকে বাগডোগরা বিমানবন্দর (Bagdogra Airport) হয়ে ভুটানের পারো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে (Paro International Airport) যেতে পারেন। সড়কপথে বাসে করেও ভারত থেকে ভুটান যাওয়া যায়।

ATM থেকে টাকা তুলতে প্রয়োজন হবে না ডেবিট কার্ডের, হাতে থাকা স্মার্টফোনেই হবে লেনদেন। RBI এর বড় ঘোষণা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(99) ""