অর্থনীতি

RBI – রিজার্ভ ব্যাংকের তরফে বড় সুখবর ঘোষণা করা হল।

Adv

RBI বা রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার তরফে এক খুশির খবর সকল নাগরিকদের জন্য আনা হল, যার অপেক্ষা অনেক দিন ধরেই সকলে করছিলেন। আপনি কি ব্যবসার জন্য লোন নিতে চাইছেন? বা নতুন বাড়ি কিংবা গাড়িকিনতে চাইছেন? কিন্তু বুঝতে পারছেন না এখন লোন নেওয়া ঠিক হবে কিনা? লোনের ইএমআই কিভাবে পরিশোধ করবেন তা নিয়ে দ্বিধাগ্রস্ত? এই প্রশ্নগুলির মধ্য থেকে যদি যেকোনো একটিরও উত্তর হ্যাঁ হয়, তাহলে আজকের প্রতিবেদনটি আপনার জন্য।

RBI Big Announcement.

বর্তমান সময়ে বেশি দামের জিনিস কিনতে মানুষ ই এম আই (EMI) এর সাহায্য নিয়ে থাকেন। কিন্তু এমন অনেকেই রয়েছেন যারা কখনোই লোন নেননি। এই মুহূর্তে ব্যাংক লোনের (Bank Loan) পরিস্থিতি সাধারণ মানুষের অনুকূলে রয়েছে বলেই জানা যাচ্ছে। তাই আপনারা যদি দীর্ঘদিন ধরে ব্যাংক থেকে লোন নেওয়ার কথা ভেবে থাকেন, তাহলে এটাই একদম উপযুক্ত সময়। এমন সুবিধা বিগত কয়েক বছরে মানুষ পায়নি। প্রয়োজন হলে এই সময়ের মধ্যে লোন নিয়ে ফেলুন (RBI).

Ad

খবর নিলে দেখবেন, গত কয়েক বছর ধরে ব্যাংকে সুদের (Bank Loan Interest) পরিমাণ বেড়েই চলেছিল। আর মানুষ এই দেখেই অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন। এখনকার সময়ে প্রত্যেকেই নিজের কিছু প্রপার্টি কিনতে চান। কিন্তু একবারে বেশি টাকা অনেকের পক্ষেই দেওয়া সম্ভব হয় না। আর ঠিক এই সময়েই প্রয়োজন পড়ে লোনের। এখন হোম লোন (Home Loan), পার্সোনাল লোন (Personal Loan), কার লোন (Car Loan) ও বিজনেস লোনের (Business Loan) চাহিদা বেশ বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এর সাথেই বৃদ্ধি পেয়েছে এইসব লোনের সুদ। RBI এর সিদ্ধান্তের ফলে এই সকল কিছুর বদল হতে চলেছে।

রিজার্ভ ব্যাংকের তরফে স্বস্তির খবর অবশেষে।

তার ফলে প্রতি মাসে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে ই এম আই এর পরিমাণ (RBI). আর ফ্যাসাদে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। পরিশ্রম করে মানুষ লোন শোধ করতে পারলেও। লোনের ই এম আই দিতে দিতেই মানুষকে হিমশিম খেতে হয়‌। তার ওপর প্রতিমাসে ই এম আই এর পরিমাণ যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে! এতেই সমস্যায় পড়ে যেতে হয় সাধারণ মানুষকে।

আর বিগত কয়েক বছরে খরচের পরিমাণ বাড়লেও মানুষের আয় একই জায়গায় রয়ে গেছে। সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, এবার পরিস্থিতি কিছুটা বদলেছে। বলা চলে এখন পরিস্থিতির মানুষের অনুকূলে। বিগত কয়েক বছর ধরে ভারতীয় বাজারে মুদ্রাস্ফীতি (Inflamation) হয়েই চলেছে (RBI). ফলে সমস্যায় পড়তে হয়েছে মানুষকে।

সেই দিকে বিশেষ নজর রেখে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া RBI (Reserve Bank Of India). গত কয়েকটি ত্রৈমাসিক ধরে বাজারে এই মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে চলেছে। এই কারণে তারা রেপো রেট (Repo Rate) ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি করছিল। ফলে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছিল সুদের হার। শোনা যাচ্ছে, এই মুহূর্তে মুদ্রাস্ফীতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তাই চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া আর রেপো রেট বাড়ায়নি।

Holiday List (পশ্চিমবঙ্গের ছুটির তালিকা)

সদ্য ত্রৈমাসিক ঋণের নীতি পর্যালোচনা সমাপ্ত হয়েছে। তারপরেও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিচালন পর্ষদ রেপো রেট বৃদ্ধি করেনি। বর্তমানে রেপো রেট রয়েছে ৬.৫%। তাই এখন আর ব্যাংক লোনের সুদের হার (Interest Rate) বাড়বে না বলেই মনে করা হচ্ছে। এমনকি হোম লোন, কার লোন ও পার্সোনাল লোন এর সুদের হার ধাপে ধাপে কমতেও শুরু করেছে। আপনারা যদি লোন নিতে চান তাহলে এই মুহূর্তে ব্যাংকে এপ্লাই করতে পারেন।

TET Scam – পশ্চিমবঙ্গের B.ED ও D.El.Ed পাশ করা শিক্ষকদের সার্টিফিকেট যাচাইয়ের নির্দেশ, জাল সার্টিফিকেট ধরা পড়বে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে বাজারে কাচা সবজির দাম ব্যাপক আকারে বেড়েছে। কিন্তু অভ্যন্তরীণ বাজারে মুদ্রাস্ফীতির হার এখনও পর্যন্ত ৫ শতাংশের ভিতরে রয়েছে (RBI). বর্তমানে যে পরিমাণ বৃষ্টি হচ্ছে তা চাষের পক্ষে অনুকূল নয়। ফসল উৎপাদনে ঘাটতি দেখা দিলে পুনরায় মুদ্রাস্ফীতি ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। তখন আবার হয়তো রেপো রেট বাড়তে পারে। তাই বর্তমান সময়ই লোন নেওয়ার উপযুক্ত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Post Office Recruitment – বেকারত্বের দিন শেষ! মাধ্যমিক পাশে পোস্ট অফিসে 31041 জন কর্মী নিয়োগ। জানুন আবেদন পদ্ধতি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(98) ""