চাকরি

Pension Status – বর্ধিত হারে পেনশন, সরকারের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ কর্মীরা, কেন?

Adv

বহুদিন ধরে বর্ধিত হারে পেনশন (Pension Status) পাওয়ার জন্য দাবি জানাচ্ছিলেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীরা। কিন্তু বেতনের নির্দিষ্ট সীমার উপরে বাড়তি টাকায় পেনশন পেতে ভর্তুকি দেওয়ার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রক বিজ্ঞপ্তি জারি করল, যাতে করে আরো ক্ষুব্ধ হলেন কর্মীরা। বিজ্ঞপ্তি জারির পর সিটু এর সাধারণ সম্পাদক বলেন, এই সিদ্ধান্ত একপ্রকার মাছের তেলেই মাছ ভাজার মতোন। কী এমন সিদ্ধান্ত নিলো কেন্দ্র। কর্মীদের উপর এই সিদ্ধান্ত কতটা প্রভাব ফেলবে? আদৌ কী বাড়ছে কর্মীদের পেনশন? জানতে হলে বিস্তারিত প্রতিবেদনটি পড়তে ভুলবেন না।

Pension Status এর নয়া নিয়মে pf একাউন্টে কত শতাংশ টাকা জমা হবে?

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, বেতনের বাড়তি অংশের উপর নিয়োগকারীর দেওয়া ১২% টাকা থেকে পেনশন তহবিলে ৯.৪৯% টাকা জমা হবে। তাতে করে নিয়োগকারীর প্রদান করা ২.৫১% টাকা জমা পড়বে কর্মীর পিএফ অ্যাকাউন্টে। বর্তমানে পেনশন তহবিলে ৮.৩৩% টাকা জমা পড়ে। এর ফলে কর্মীর পিএফ অ্যাকাউন্টে (Pension Status) ৩.৬৭% টাকা জমা পড়ে।

Ad

বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, নিয়োগকারীর দেওয়া যে অংশ কর্মীর পিএফ অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে এবং তিনি অবসর গ্রহণের পর সুদ-সহ যে পরিমান টাকা হাতে পান। এবার সেখান থেকেই ১.১৬% বাড়তি তহবিলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাই অবসর গ্রহণের পর pf খাতে নিয়োগকারীর প্রদান করা টাকার পরিমান কমে যাবে। তবে বর্ধিত পেনশন (Pension Status) দাবি না করলে পূর্বের নিয়মই কার্যকর থাকবে।

LIC Bima Ratna (এল আই সি বিমা রত্ন)

নতুন ব্যবস্থা ২০১৪ এর ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর বলে বিবেচনা করা হবে। এতদিন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৫,০০০ টাকার উপর পেনশন হিসাব করা হত। তাছাড়া পূর্বে Pension Status খাতে যোগ দিতে চাইলে বেতনের ঊর্ধ্বসীমা ৫,০০০ টাকা ছিল। পরে তা বাড়িয়ে ৬,৫০০ টাকা হয়েছে। সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, কর্মীর ইচ্ছে অনুসারে নির্দিষ্ট শর্ত পূরণ করে সেই সীমা বাড়িয়ে পুরো বেতনেও পেনশন দাবি করতে পারেন।

আদালতের 3 নির্দেশে পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকদের মাথায় হাত। নতুন Service Rule জেনে নিন।

যদিও ট্রেড ইউনিয়নগুলি পেনশন তহবিলের ভর্তুকি নিয়ে কেন্দ্রের নয়া বিজ্ঞপ্তিতে ক্ষুব্ধ হয়েছে।
এ নিয়ে কর্মীরা সরকারকে চিঠি দেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, সিটুর সাধারণ সম্পাদক তপন সেনের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের তারা প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। এটা একপ্রকার মাছের তেলেই মাছ ভাজা। ইউনিয়নগুলির দাবি সত্ত্বেও সরকার পেনশনের (Pension Status) পরিমাণ ন্যূনতম ১০০০ টাকা থেকে বাড়ায়নি।

এখন আবার বর্ধিত পেনশনের দাবির ক্ষেত্রে পিএফের কর্মী সদস্যদের উপরেই বাড়তি তহবিলের দায় চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে। যদিও ওই ভর্তুকি কেন্দ্রের দেওয়ার কথা, এমনটাই বলেন তিনি। পাশাপাশি এআইইউটিইউসিও এর প্রতিনিধি দিলীপ ভট্টাচার্য জানান, অছি পরিষদে কোনও আলোচনা ছাড়াই কেন্দ্র কেন এই সিদ্ধান্ত নিলো। যা অবাক করার মতো। পেনশন বাড়ানোর দাবি জানালেও, সদস্যের উপরই ভর্তুকির বোঝা চাপিয়ে দিয়ে বর্ধিত পেনশনের দাবীকে নষ্ট করার উদ্দেশ্য কাজ করছে।

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো পর্ষদ।

এনিয়ে তিনি স্পষ্ট জানান, কেন্দ্র চায় এই দাবি থেকে সদস্যরা মুখ ফিরিয়ে নিক।
তবে এই বিজ্ঞপ্তির প্রতিবাদ জানিয়ে সরকারকে চিঠি পাঠানো হয় কিনা বা চিঠির পাল্টা উত্তরে কী জবাব আসে, এখন সেটাই দেখার বিষয়।
Pension Status সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(100) ""