প্রকল্প

WB Government Scheme – রাজ্য সরকারের এই প্রকল্পে মিলবে বার্ষিক 10 হাজার টাকা, জেনে নিন আবেদন পদ্ধতি।

Adv

বর্তমানে দেশে সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে বহু সরকারি প্রকল্প বা Government Scheme রয়েছে। এর মধ্যে কোনোটি নারীদের, কোনোটি কন্যা সন্তানের জন্য। সেই সরকারি প্রকল্পগুলি বা Government Schemes মধ্যে অন্যতম একটি হল কৃষক বন্ধু প্রকল্প। ২০১৯ সালের জানুয়ারী মাসে কৃষি বিভাগ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই সরকারি প্রকল্প বা Government Scheme চালু করেছিল। উদ্দেশ্য রাজ্যের সকল কৃষকদের কৃষি কাজের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা। ২০২১ সালে এই প্রকল্পের পুনঃ নামকরণ করে “কৃষক বন্ধু” প্রকল্প নামটি রাখা হয়েছিল। যার মাধ্যমে ব্যাপক সুবিধা দেওয়া হয়েছে আবেদনকারীদের।

এই Government Scheme এ আবেদন করলেই মিলবে হাতে গোনা ১০ হাজার টাকা।

ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পের বা Government Scheme এর টাকা আবেদনকারীদের ব্যাংক একাউন্টে প্রেরণ করা শুরু হয়েছে। যে সকল আবেদনকারীর জমা দেওয়া একাউন্ট নম্বরের একাউন্টটি সক্রিয় রয়েছে, তারা এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। যদিও এক দিনের মধ্যে সকল আবেদনকারীর একাউন্টে টাকা পাঠানো সম্ভব নয়। এখনও যারা একাউন্টে টাকা পাননি। চিন্তার বিষয় নয়। কিন্তু যদি কৃষকদের স্ট্যাটাসে এডিএ আপলোডেড বা DDA আপলোড রয়েছে, তাদের ট্রানজেকশন স্ট্যাটাস একাউন্ট ভ্যালিড না হওয়া পর্যন্ত প্রকল্পের টাকা পাবেন না।

Ad

এই Government Scheme বা সরকারি প্রকল্পে আবেদনের বয়সসীমা –
এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য কৃষকদের অর্থনৈতিক দিক থেকে উন্নত করা। এই Government Scheme এর আওতায় আবেদনকারী কৃষকের বয়স ১৮ বছর থেকে ৬০ বছরের মধ্যে হতে হবে।

ফেব্রুয়ারী মাসের 10 দিন বন্ধ থাকছে ব্যাংক, কোন কোন দিন?

কৃষক বন্ধু প্রকল্পে নাম চেক করার পদ্ধতি :-
কৃষক বন্ধু প্রকল্প নামক Government Scheme এ নাম চেক করার পদ্ধতি নিচে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হলো –
১) প্রথমে স্ট্যাটাসে নিজের কৃষকবন্ধু আইডি নম্বর দেখা যাবে। কৃষকের নাম,জেলা, ব্লক, গ্রামের নাম, জমির পরিমান ইত্যাদিও দেওয়া থাকবে। Status (Approved) * থাকবে।
২) যদি Approved না হয়ে থাকে তবে কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে। তারপর আবার চেক করতে হবে। দেখতে হবে ট্রানসেকশন স্ট্যাটাসে “Transaction Successful” দেওয়া আছে কিনা।

কত টাকা দেওয়া হয়?
কৃষক বন্ধু প্রকল্প নামক Government Scheme এ বার্ষিক ১০,০০০ হাজার টাকা সরাসরি ব্যাংক একাউন্টে প্রদান করা হয়। এই টাকা তাদের দুটি কিস্তিতে দেওয়া হয়।

এই প্রকল্পের টাকা ঢুকেছে কিনা চেক করার পদ্ধতি (১) :-
১) মোবাইল বা ল্যাপটপ বা যে কোনো ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে গিয়ে ইন্টারনেট সহযোগে কৃষক বন্ধু প্রকল্প লিখে সার্চ করতে হবে।
২) কৃষক বন্ধু অফিশিয়াল ওয়েবসাইটি ওপেন করতে হবে। এরপর ‘নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। একটি নতুন পেজ ওপেন হবে। তাতে আবেদনকারী কৃষকের ভোটের কার্ড নম্বরটি নির্দিষ্ট জায়গায় সঠিকভাবে লিখতে হবে।
৩) ‘i’m not a robot’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। শেষে সার্চ অপশনে ক্লিক করতে হবে।তাহলেই কৃষকবন্ধুর স্ট্যাটাস দেখা যাবে।

এই প্রকল্পের টাকা ঢুকেছে কিনা চেক করার পদ্ধতি (২) :-
১) ব্যাংক একাউন্টের স্টেটমেন্ট চেক করা/ আবেদনকারীর মোবাইলের মেসেজ বক্স চেক করা।
২) একাউন্ট স্টেটমেন্ট বা মেসেজে ২০০০ টাকার ঢোকার মেসেজ আসলে বোঝা যাবে কৃষক বন্ধুর টাকা পাঠানো হয়েছে।

অন্যান্য সুবিধা-
এই প্রকল্পের বা Government Scheme এর অনেক সুবিধা আছে। এই প্রকল্পের অন্য একটি সুবিধা হল কৃষকদের অকাল মৃত্যু হলে খামার পরিবারগুলিকে ২ লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়।

এই প্রকল্পে আবেদনের নিয়ম –
কৃষক বন্ধু প্রকল্পের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করে কৃষি বিভাগ সেকশনে ক্লিক করতে হবে। একটি একাউন্ট তৈরি করে ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড তৈরি করতে হবে। আবেদনকারীর আধার কার্ড, ভোটার কার্ড ও মোবাইল নম্বরের সাহায্যে ইউজার নেম, পাসওয়ার্ড তৈরি করতে হবে। এরপর লগইন করলে অপশন দেখা যাবে। তার মধ্যে থেকে অনলাইন এপ্লাই করতে হবে।

প্রকল্পে আবেদনের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র-
১) আধার কার্ড,
২) ভোটার কার্ড,
৩) মোবাইল নম্বর,

৪) ব্যাংক অ্যাকাউন্ট,
৫) জমির দলিল,
৬) পর্চা।

আরো বিশদে জানতে হলে –
হেল্পলাইন নম্বর-
8597974989
6291720406
সময়- সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা।

মানবিক প্রকল্পে প্রতি মাসে 1000 টাকা দিচ্ছে মমতা, নাম লেখাতে এখানে ক্লিক করুন।

ইমেইল আইডি-
krishak. bandhu@ingreens.com
এই সংক্রান্ত নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(108) ""