প্রকল্প

EMPS Scheme – বাইক ও 4 চাকা গাড়ি কিনতে টাকা দিচ্ছে সরকার। আবেদন করলেই 50000 টাকা। কিভাবে পাবেন, জেনে নিন।

Adv

কেন্দ্র সরকারের নতুন উদ্যোগ, এখন বৈদ্যুতিক গাড়ি কিনলেও পাবেন EMPS Scheme এর মাধ্যমে পাবেন ভর্তুকি। হ্যাঁ ঠিক শুনেছেন। দেশে এখন পেট্রোল ডিজেল চালিত গাড়ির সংখ্যা কমিয়ে বৈদ্যুতিক গাড়ি (Electric Vehicle) চালানোর প্রতি জোর দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার (Central Government). এই উদ্যোগ নেওয়ার পেছনে সবচেয়ে বড় কারন হল দূষণ।

EMPS Scheme 2024 Online Apply Process.

আমাদের দেশে বর্তমানে এমন কোনো বাড়ি নেই যেখানে দুই চাকা, চার চাকা অথবা তিন চাকার গাড়ি নেই। আর এই সব গাড়ি পেট্রোল ডিজেল দিয়ে চলার ফলে দূষণ ও হচ্ছে বেশি মাত্রায়। যত দিন যাচ্ছে দূষণের মাত্রা বেড়ে যাচ্ছে। এর ফলে যেমন প্রকৃতির ক্ষতি হচ্ছে তেমন মানুষদেরদেরও অনেক ক্ষতি হচ্ছে। তাই এই ক্ষতি আটকানোর জন্য কেন্দ্র সরকার এই বৈদ্যুতিক গাড়ি উপরে জোর দিয়েছে (EMPS Scheme 2024).

Ad

এই দূষণ ছাড়াও আর একটি কারনে বৈদ্যুতিক গাড়ির প্রচলন বেশি মাত্রায় শুরু করতে চাইছে তাহল পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধি। দিন দিন পেট্রোল ডিজেলের দাম (Petrol Diesel Price) বেড়ে যাচ্ছে। আর এই পেট্রোল ডিজেল কিনতে ভারতের যে বিপুল পরিমানে বৈদেশিক মুদ্রার (Foreign Reserve) খরচ হয় তা কমানোর জন্য এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর জন্যে মোদী সরকার নিয়ে এসেছে Electric Mobility Promotion Scheme Or EMPS Scheme 2024.

এই EMPS Scheme মাধ্যমে আপনি বৈদ্যুতিক গাড়ি কিনলে পাবেন 50 হাজার টাকা পর্যন্ত সরকার থেকে ভর্তুকি পাবেন। ভারতীয় বাজারে ইকার বা ইভি এর প্রচলন বেশ কয়েক বছর ধরেই শুরু হয়েছে। ধীরে ধীরে এই সব গাড়ির ব্যবহার আরো বাড়ছে। কিন্তু কেন্দ্র সরকার চাইছে দ্রুত বৈদ্যুতিক গাড়ি গুলো পেট্রোল ডিজেল চালিত গাড়ির জায়গা নিক। আর তাই সে জন্যে Charging Station গড়ার কাজ চলছে জোড় কদমে।

আর এই জন্যই সাধারন মানুষদের বৈদ্যুতিক গাড়ি কেনার জন্য আরো উৎসাহিত করতে এই বিশেষ EMPS Scheme চালু করেছে কেন্দ্র সরকার। চার চাকা গাড়ির ক্ষেত্রে বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা অর্থাৎ EV এর ব্যবহার আগের থেকে অনেকটাই বেড়েছে। কিন্তু টু হুইলার বা বাইক ও স্কুটির ব্যবহার অতটা বাড়েনি। আর তাই এই নতুন EMPS Scheme বৈদ্যুতিন বাইক কেনার ক্ষেত্রেও ইনসেনটিভের কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

EMPS Scheme এর মাধ্যমে কত টাকা ভর্তুকি দেওয়া হচ্ছে? এই প্রকল্পের মাধ্যমে টুহুইলার কেনার ক্ষেত্রে 10 হাজার টাকা ভর্তুকি দেবে সরকার। তিন চাকার গাড়ি অর্থাৎ টোটো বা ই রিক্সা কেনার ক্ষেত্রে 25 হাজার টাকা ভর্তুকি দেবে সরকার। আর চার চাকার গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে 50 হাজার টাকা পর্যন্ত ভর্তুকি দেবে সরকার। কেন্দ্র সরকারের এই উদ্যোগ গ্রাহকদের আরো বৈদ্যুতিক গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে বেশিমাত্রায় উৎসাহিত করবে বলে মনে করছে গাড়ি উৎপাদক সংস্থা গুলো।

Svanidhi Yojana (প্রধানমন্ত্রী স্বনিধি যোজনা)

উল্লেখ্য, ভারতের প্রায় বেশিরভাগ সব গাড়ি তৈরির সংস্থা গুলো বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছে জোর কদমে। কারন পেট্রোল ডিজেলের দাম ক্রমাগত বৃদ্ধির ফলে মানুষ বৈদ্যুতিক গাড়ি কেনার দিকে ঝুঁকে যাচ্ছেন। তবে এক্ষেত্রে একটি সমস্যা তা হল Charging Station এখন পর্যন্ত সেভাবে গড়ে ওঠেনি ভারতে। আর এই কারণের জন্য EMPS Scheme এর মাধ্যমে আপনারা ভর্তুকি পেতে পারবেন।

এইভাবে লটারি টিকিট কিনে কোটিপতি হলেন বাংলার যুবক। লটারি জেতার গোপন টেকনিক জেনে নিন।

আর ধীরে ধীরে সকল দেশবাসী ইলেকট্রিক স্কুটার বা বাইক আর গাড়ির সঙ্গে সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে যাচ্ছে। আর এই EMPS Scheme এর মাধ্যমে আপনারাও এই সুবিদা নিয়ে নিতে পারবেন। আর সকল কিছুর জন্য আপনারা এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে জেনে নিতে পারবেন এবং এই সুবিধা আপনারা নিয়ে নেবেন। এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Ananya Chakraborty.

ব্যবসা করার জন্য লাখ টাকা দিচ্ছে সরকার। অনলাইনে আবেদন করলেই পাবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(107) ""