গুরুত্বপূর্ণ খবর

EWS Certificate – বদলে গেল সংরক্ষনের নিয়ম। এবার General ও OBC প্রার্থীরাও সুযোগ পাবেন।

Adv

আপনার কি EWS Certificate আছে? আপনি কি EWS সার্টিফিকেটের জন্য apply করতে চান? তাহলে এই প্রতিবেদন আপনার জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। EWS Certificate নিয়ে নতুন নোটিশ বের হয়েছে। EWS সার্টিফিকেট দেবার নিয়মে পরিবর্তন করা হয়েছে। এবার থেকে যারা OBC আছে তাদেরকেও দেওয়া হবে EWS সার্টিফিকেট। কিন্তু সব OBC রা পাবেন না যাদের নাম কেন্দ্রের লিস্ট এ আছে তারা পাবেনা কিন্তু যাদের নাম কেন্দ্রের লিস্টে নেই সেই সব OBC আবেদনকরীরা EWS সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্যে আবেদন করতে পারেন। চলুন এবার EWS সার্টিফিকেট সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

How to apply for EWS Certificate online

EWS সার্টিফিকেট কি?

EWS সার্টিফিকেটের পুরো নাম হল economically Weaker Section (EWS). এর বাংলায় মানে হল ‘অর্থনৌতিকভাবে দুর্বল বিভাগ’
এই EWS Certificate টি অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া বা দুর্বল জেনারেল জতিভুক্তদের জন্যে চালু করা হয়েছে। এই সার্টিফিকেটটি থাকলে যেকোনো সরকারি চাকরি বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে 10 শতাংশ আসন সংরক্ষিত থাকবে।

এমন অনেক জেনারেল কাস্ট এর ছেলে মেয়ে আছে যারা অর্থনৈতিক ভাবে দুর্বল তারা যোগ্য কিন্তু অনেক সময় আসন সংখ্যা সীমিত থাকার তারা চাকরি পায়না তাদের জন্যে এই সার্টিফিকেটটি অনেক কাজে লাগবে। আর সাম্প্রতিক সরকার এই সুবিধা চালু করেছে। যাতে জেনারেল শ্রেণীর ছেলেমেয়েরাও সংরক্ষনের সুবিধা পায়। তবে এবার শর্ত সাপেক্ষে OBC ক্যাটাগরির ছেলে মেয়েরা ও এবার EWS Certificate এর সুবিধা পাবে।

EWS সার্টিফিকেট পেতে কি কি যোগ্যতা লাগবে?

1) জেনারেল কাস্ট এর হতে হবে। OBC কাস্ট এর হলে কেন্দ্রের লিস্ট এ নাম থাকলে হবে না।
2) পরিবারের আয় বাৎসরিক 8 লক্ষ টাকার নিচে হতে হবে।
3) শহরে আবাসিক ফ্ল্যাট থাকে তাহলে তা 1000 বর্গফুটের কম হতে হবে। আর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় হলে 200 বর্গফুটের কম হতে হবে।
4) পরিবারের 5 একরের কম জমি থাকতে হবে।

আরও পড়ুন, রেশন গ্রাহকেরা 450 টাকায় পাবেন রান্নার গ্যাস, বড় ঘোষণা করলো রাজ্য সরকার।

Application for Economically Weaker Section Certificate

কিভাবে আবেদন করবেন?

এই EWS সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করার জন্যে অফলাইনে আবেদন করতে হবে। অফলাইনে ফর্ম ডাউনলোড করে তা বেড় করে ঠিক মত পূরণ করতে হবে। পূরণ করার পর আবেদন পত্রের সাথে প্রয়োজনীয় নথি যুক্ত করতে হবে। তারপরে জমা করতে হবে।

কি কি নথি লাগবে?

এই সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে হলে লাগবেঃ
ভোটার কার্ড,
প্যান কার্ড,
জন্মের প্রমাণপত্র হিসেবে বার্থ সার্টিফিকেট বা মাধ্যমিকের এডমিট কার্ড,
নিজের এবং বাবা-মা এর স্থায়ী বাসিন্দার প্রমাণপত্র,
জমি ও সম্পত্তির নথি, স্ব-ঘোষনা পত্র।

আরও পড়ুন, লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প নিয়ে বড় ঘোষণা সরকারের, খুশির খবর সবার জন্য।

নিচে আবেদন পত্রের লিংক দেওয়া হল এই লিংক থেকে আবেদন পত্র ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।
সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন
Written by Ananya Chakraborty.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(102) ""