অর্থনীতি

SBI RD Calculator 2023 – বাম্পার স্কীম, প্রতিমাসে অল্প অল্প করে জমান, স্টেট ব্যাংক সারাজীবন দেবে সংসারের সমস্ত খরচ।

Adv

SBI RD Calculator:
ব্যাংক বা পোস্ট অফিসে সঞ্চয় করছেন? কোথায় বেশি সুদ পাওয়া যায়, কি জানেন? তার আগে ভালো করে জেনে নিন কোন স্কিমে টাকা জমালে ভবিষ্যতে ভালো রিটার্ন পাওয়া যাবে। বর্তমানে ব্যাংক বা পোস্ট অফিসের তরফে একাধিক স্কিম চালু করা হয়েছে। যেখানে নূন্যতম বিনিয়োগে ভালো রিটার্ন পাওয়া যায়। তেমনই একটি ভরসার ঠিকানা হল SBI. দেশের এই রাষ্ট্রয়ত্ব ব্যাংকে বহু নাগরিকের একাউন্ট ওপেন করা রয়েছে। বিভিন্ন স্কিমের রুলস অনুযায়ী টাকা বিনিয়োগ করছেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু জানেন কি স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার এই স্কিমে টাকা বিনিয়োগ করলে পাবেন প্রায় 58,000 টাকা। কিভাবে? চলুন বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

SBI RD Calculator

SBI তে সেভিংস একাউন্ট, ফিক্সড ডিপোজিট একাউন্ট এর মতো ওপেন করা যাবে রেকারিং ডিপোজিট একাউন্ট। যাকে বলা হয় SBI RD Calculator. এই একাউন্টে নূন্যতম মেয়াদে নির্দিষ্ট টাকা জমালে মেয়াদ শেষে পাওয়া যাবে প্রায় 58,000 টাকা।
কত টাকা বিনিয়োগ করতে হবে?
কোনও ব্যক্তি যদি মাত্র 5000 টাকা RD স্কিমে টাকা বিনিয়োগ করেন করেন পাবেন অতিরিক্ত 57,658 টাকা। কারণ বিনিয়োগের উপর দেওয়া হবে 6.75% হারে সুদ। তবে প্রতি মাসে টাকা জমা করতে হবে।

Ad

ব্যাংক লোন নিয়েছেন? EMI নিয়ে আর ব্যাংকের দাদাগিরি নয়। নতুন আইন আনলো রিজার্ভ ব্যাংক।

কত বছরের মেয়াদে পাওয়া যাবে 57,658 টাকা?
ধরা যাক ব্যক্তি রেকারিং ডিপোজিট স্কিমে মাসে মাসে 5000 টাকা করে বিনিয়োগ করেন এবং বিনিয়োগের সময়কাল হল 5 বছর। তাহলে বছরে তাকে 60,000 টাকা করে জমা করতে হবে। আর 5 বছরের জন্য মোট 3 লাখ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

তবে 6.75% হারে সুদ হিসাবে পাবেন অতিরিক্ত 57,658 টাকা। মেয়াদ শেষে পাওয়া যাবে মোট 3 লাখ 57 হাজার 658 টাকা।
রেকারিং ডিপোজিট স্কিমে বিনিয়োগের মেয়াদ- ব্যক্তি ইচ্ছে অনুসারে, SBI এর RD স্কিমে 1 বছর থেকে 10 বছরের জন্য মেয়াদ বেছে নিতে পারেন। এছাড়া ন্যূনতম 100 টাকার বিনিয়োগ দিয়েও শুরু করতে পারেন। কিন্তু মনে রাখতে হবে, বিনিয়োগের অঙ্কের উপর সুদের পরিমান নির্ভর করে।

সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য SBI RD Calculator স্কিমে সুদের হার কত?
একজন সাধারণ নাগরিকের তুলনায় প্রবীণ নাগরিকেরা এই স্কিমে বেশি সুদ পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে 6.75% থেকে 7.25% পর্যন্ত সুদের সুবিধা পাবেন। আর এতে করে বিনিয়োগের উপর ভালো রিটার্নও পাওয়া যাবে।

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের তরফে গ্রাহকদের দেওয়া হল এই নির্দেশ, না মানলে আর টাকা তুলতে পারবেন না।

আরো বিশদে জানতে হলে নিকটবর্তী SBI এর শাখায় গিয়ে সংশ্লিষ্ট আধিকারিকের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। এছাড়া SBI এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট চেক করে জেনে নিতে পারেন।
লিংক- https://sbi.co.in/web/personal-banking/investments-deposits/deposits/recurring-deposit
বিনিয়োগ সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(109) ""