প্রকল্প

Free Petrol – রেশন কার্ড থাকলেই বিনামূল্যে মিলবে পেট্রোল? কোথায় ও কি করতে হবে জেনে নিন।

Adv

রেশন কার্ড থাকলেই পাওয়া যায় রেশন। একথা অজানা নয় কোনো ব্যক্তির। তবে অজানা কথাটি হল এবার থেকে রেশন কার্ড থাকলে আরো একটি বড়োসড় সুবিধা। Free Petrol, পেতে চলেছেন কার্ডধারীরা। অতিমারীর আবহে দেশের অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া সাধারণ মানুষের জন্য বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছিল সরকার। যা বর্তমানে চালু রয়েছে। এর মেয়াদ আরো ১ বছর বাড়ানো হয়েছে।

কীভাবে মিলবে Free Petrol ভর্তুকি?

এবার রেশন কার্ড থাকলে মিলবে Free Petrol ব্যবহারে ভর্তুকি। বর্তমানে দেশের অধিকাংশ মানুষের চার চাকা কেনার সামর্থ না থাকলেও সাইকেল বা বাইক কিনে করে থাকেন। এবার সেই সকল মোটর বাইক চালকদের জন্য দারুন সুবিধা দিলো সরকার। এমনিতেই পেট্রোল ডিজেলের দাম ক্রমশ উর্দ্ধমুখী। তার মধ্যে বাজারে সবজিরও দাম কম নয়।

Ad

রেশন তোলার নিয়মে বড় পরিবর্তন, আর লাগবে না আঙুলের ছাপ, বিশদে জানুন।

মাসিক বেতন দিয়ে সংসার খরচ, সঞ্চয়, বাড়তি খরচ (যাতায়াতের জন্য গাড়িতে পেট্রোল ভরা ইত্যাদি) কষ্টসাধ্য ব্যাপার। তাই এই সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে। তবে এ রাজ্যের আমজনতা নয়, তাহলে?
সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, বাইক চালকদের জন্য ঝাড়খণ্ড সরকার পেট্রোলে ভর্তুকির কথা ঘোষণা করেছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে আবেদনকারীরা পাবেন ২৫০ টাকা পর্যন্ত ভর্তুকি।

রেশন কার্ডধারীরা এই ভর্তুকি স্কিমের অধীনে মাসে ১০ লিটার পেট্রোলের ব্যবহারের উপর ২৫০ টাকা ভর্তুকি পাবেন। তবে ঝাড়খণ্ড সরকারের তরফে আরো জানানো হয়েছে, এ নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে, যে সকল ব্যক্তিরা আবেদন জানাবেন, তাদের Ration Card বাতিল করা হবে। এর জেরে ভর্তুকির জন্য অনেকেই আবেদন জানাননি। কিন্তু পেট্রোলে ভর্তুকির জন্য আবেদন জানালে কারো রেশন কার্ডই বাতিল করা হবে না।

Free Petrol পাওয়ার আবেদন পদ্ধতি-
এতদিন ধরে এই ভর্তুকি পেতে হলে সেন্টারে গিয়ে আবেদন জানাতে হত আবেদনকারীদের। বর্তমানে এই আবেদন পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। তা হল রেশন ডিলারের কাছ থেকে স্ট্যাম্প নিয়েও ভর্তুকির জন্য আবেদন জানানো যাবে।

বর্তমানে কোনো জিনিসের সুবিধা পেতে হলে, তা নিয়ে নানা গুজব রটানো হয়ে থাকে। এক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছে। বিধানসভা অধিবেশন চলাকালীন ঝাড়খণ্ডের অর্থমন্ত্রী রামেশ্বর ওরাওঁ জানিয়েছিলেন, রেশন কার্ডধারী পরিবারগুলিকে পেট্রোল ব্যবহারে ২৫০ টাকা ভর্তুকি দেওয়ার প্রসঙ্গে গুজব ছড়ানো হয়। তাতে করে অনেক কার্ডধারীই এই স্কিমের সুবিধা নেননি।

স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিয়ে কিছু আপডেট প্রকাশ করলো পশ্চিমবঙ্গ সরকার। দেখে নিন একনজরে।

কিন্তু একটা বিষয় সর্বদা মনে রাখা দরকার, যে কোনো গুজবে কান দেওয়ার আগে বা কোনো সরকারি প্রকল্পের সুবিধা নিতে সংশয় তৈরি হলে অফিশিয়াল ওয়েবসাইট বা হেল্প লাইন নম্বরে কল করতে ভুললে চলবে না। কোনো বিভ্রান্তিমূলক কথায় কান না দেওয়াই ভালো।
এই সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(89) ""