অর্থনীতি

আর মাত্র 10 দিন, এই ব্যাংক গ্রাহকেরা পাবেন না কোনো সুবিধা, বন্ধ হবে ব্যাংক একাউন্ট।

Adv

বর্তমানে দেশের প্রায় সকল মানুষেরই কোনো না কোনো ব্যাংকে নিজস্ব একাউন্ট রয়েছে। আর তা বিশেষত সম্ভব হয়েছে বিভিন্ন স্বল্প সঞ্চয় স্কিম থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে আর্থিক সুযোগ সুবিধা প্রদানের ফলে। ভবিষ্যতের জন্য যে সকল সঞ্চয় স্কিমগুলি রয়েছে, তাতে বিনিয়োগ করলে নির্দিষ্ট সময় শেষে পাওয়া যায় আকর্ষণীয় সুবিধা। আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রেও যে সবসময় ব্যাংকে ছুটতে হয়। তা নয় বাড়িতে বসে অনলাইনের মাধ্যমেই সেরে ফেলা সম্ভব। তবে এই সকল সুযোগ সুবিধা আর পাবেন না ব্যাংক হোল্ডারেরা, যদি না তারা এই কাজ সারেন। কী কাজ?

একাউন্ট চালু রাখতে কি করতে হবে?

দেশের নাগরিকদের পরিচয় প্রমান হিসেবে যেমন জরুরি আধার কার্ড। তেমনই ব্যাংক একাউন্টে টাকা সঞ্চয় থেকে শুরু করে আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রেও প্রয়োজন হয় প্যান কার্ড। তাছাড়া আয়ের উপর ITR ফাইল করার জন্যও এই নথি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকবার আধার এবং প্যান কার্ড লিংক বা সংযুক্তকরণের জন্য নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল।

Ad

চলতি বছরের 31 মার্চ ছিল এই লিংকের শেষ দিন। তবে অনেক নাগরিকই এই কাজ সময়ের মধ্যে সারেন নি। আবার অনেকে লিংক করানোর সমলি নানান সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। সাধারণ মানুষের কথা ভেবে আধার প্যান কার্ড লিংকের সময়সীমা আরো 3 মাস বাড়ানো হয়েছিল। সেইমতো আগামী 30 জুন, 2023 আধার কার্ড ও প্যান কার্ড সংযুক্তিকরণের শেষ দিন। হাতে মাত্র 10 দিন।

এর মধ্যেই সারতে হবে এই কাজ। তা না হলে নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে প্যান কার্ড। এমনকি আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রেও নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে ব্যাংক একাউন্ট হোল্ডারদের। এই কার্ড সচল করতে দিতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানাও। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, এর আগেও অনেকবার কার্ড লিংকের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে, তাই আর এই সময়সীমা বাড়ানো হবে না।

আগামী 30 জুনের মধ্যে প্যান-আধার লিংক না করালে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে 50000 বা তার বেশি টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে গভীর সমস্যায় পড়তে হবে একাউন্ট হোল্ডারদের। এই কাজ সহজেই বাড়িতে বসে সেরে ফেলতে পারেন। কেবলমাত্র লেট ফাইন হিসেবে দিতে হবে নির্দিষ্ট টাকা।
আধার-প্যান কার্ড লিংকের পদ্ধতি-

প্রথমে NSDL পোর্টাল ওপেন করতে হবে। ট্যাক্স পেমেন্ট পেজে ভিজিট করতে হবে।
পেজ ওপেন হলে নন-টিডিএস/টিসিএস ক্যাটাগরির অধীনে থাকা Challan no./ITNS 280 অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে। পরবর্তী পেজে ট্যাক্স অ্যাপ্লিকেবেল অপশনে 0021 Income Tax (other than companies) এই ট্যাব সিলেক্ট করে টাইপ অফ পেমেন্ট অপশনে 500 Other Receipts অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে।

EPFO একাউন্ট রয়েছে? এখন থেকে 3 বার পাওয়া যাবে বিশেষ সুবিধা, বিস্তারিত জানুন।

যেই মোডে পেমেন্ট করতে ইচ্ছুক সেটি এন্টার করে আবেদনকারীর প্যান কার্ড, অ্যাসেসমেন্ট ইয়ার ইত্যাদি দিতে হবে। এরপর ক্যাপচা কোড দিয়ে পেমেন্ট জমা করতে হবে। পেমেন্ট জমা হয়ে গেলে ইনকাম ট্যাক্স এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করে আধার ও প্যান কার্ড লিংক করার জন্য রিকোয়েস্ট জমা করতে হবে। উল্লেখ্য, টাকা জমা দেওয়ার পর থেকে কমপক্ষে 4 দিন অপেক্ষা করার পরামর্শ দেওয়া হয়। দেখা হয়, আদৌ পেমেন্ট জমা হয়েছে কিনা।

এরপর ই-ফাইলিং ওয়েবসাইট ওপেন করে ‘লিংক আধার’ অপশনে ক্লিক করতে হবে।NSDL ওয়েবসাইটে আগেই যে পেমেন্ট করা হয়েছে, তা ভেরিফায়েড সেই নিয়ে পপ-আপ মেসেজ স্ক্রিনে দেখা যাবে। ‘Continue’ বাটনে ক্লিক করে আধার লিংক রিকোয়েস্ট পাঠাতে হবে। নতুন পেজ ওপেন হলে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে ‘Link Aadhar’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। আবেদনকারীর রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি আসবে, সেটি সঠিকভাবে এন্টার করলে আধার ও প্যান কার্ড লিংক হয়ে যাবে।

পোস্ট অফিসের নতুন স্কীম, যতটা জমাবেন, ডবল লাভ পাবেন।

প্যান ও আধার লিংকের স্ট্যাটাস চেক করার পদ্ধতি-
১) ই-ফাইলিং পোর্টাল ওপেন করতে হবে।
২) হোমপেজ ওপেন হলে Quick link এর অধীনে ‘Link Aadhar Status’ অপশনে ক্লিক করে আধার ও প্যান কার্ড নম্বর এন্টার করে ‘’View Link Aadhar Status’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। তাহলেই স্ক্রিনে দেখানো হবে প্যান ও আধার কার্ড লিংক হয়েছে কিনা।
এই সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।
Written by Manika Basak.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(95) ""