প্রকল্প

কবে পাবেন লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা? নতুন আবেদন ও আগের সকল গ্রাহকদের জন্য সুখবর।

Adv

কবে থেকে পাবেন লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা?

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের (lakshmir bhandar) টাকা কবে নাগাদ রাজ্যের সমস্ত মহিলাদের একাউন্টে ঢুকতে চলেছে? এই প্রকল্পে মহিলারা প্রতিমাসে ১ হাজার টাকা এবং ৫০০ টাকা নিয়ম অনুযায়ী পেয়ে থাকেন। এবার সাম্প্রতিক সময়ে কিছুদিন হলো লক্ষীর ভান্ডারের (Lakshmir Bhandar) টাকা বহু মহিলার একাউন্টে সঠিক সময়ে ঢোকেনি। আর তার ফলে তাদের মধ্যে চিন্তা শুরু হয়েছে। কি কারনে লক্ষীর ভান্ডারের টাকা তারা পাচ্ছেন না?

শুধু তাই নয়, নতুন যারা লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য আবেদন করেছেন তারাও ভাবছেন, কবে নাগাদ তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা ঢুকতে চলেছে? এই প্রসঙ্গে সম্প্রতি রাজ্যের মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসকদের সঙ্গে বৈঠক করে নির্দেশ দিয়েছেন, আগামী ২০ এপ্রিলের মধ্যে লক্ষীর ভান্ডারসহ সমস্ত সামাজিক প্রকল্পের টাকা উপভোক্তাদের ব্যাংক একাউন্টে পৌঁছে দিতে হবে।

Ad

কিন্তু সেই নির্দেশ দেওয়া হলেও জানা যাচ্ছে ২০ এপ্রিলের মধ্যে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা ব্যাংক একাউন্টে দেওয়া হবে না। সেই টাকা ঢুকবে আগামী ২৬ এপ্রিল। নবান্ন সভাঘরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ওই দিন প্রশাসনিক বৈঠক করবেন। সেই প্রশাসনিক বৈঠকেই একদিনে লক্ষ্মীর ভান্ডারসহ সমস্ত প্রকল্পের উপভোক্তাদের ব্যাংক একাউন্টে টাকা দেওয়া শুরু করবেন মুখ্যমন্ত্রী।
ফলে আর চিন্তা করার কারণ নেই। ২৬ এপ্রিলেই লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে টাকা ঢুকতে চলেছে।

Property Aadhaar Link (আধার লিঙ্ক)

শুধু তাই নয়, নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, ধাপে ধাপে কৃষক বন্ধু, বিধবা ভাতা, বার্ধক্য ভাতা সহ সামাজিক যে সমস্ত সুরক্ষা প্রকল্প রয়েছে, সেই সমস্ত প্রকল্পের টাকা দেওয়াও শুরু হয়ে যাবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২৬ এপ্রিল নবান্ন সভাঘরে প্রশাসনিক বৈঠক থেকে রিমোট টিপে সমস্ত প্রকল্পের টাকা দেওয়ার সূচনা করবেন। তার মধ্যে পুরনো সুবিধাভোগী যারা এতদিন টাকা পাচ্ছিলেন, কিছু টেকনিক্যাল কারণে সঠিক সময়ে তাদের ব্যাংক একাউন্টে লক্ষ্মীর ভান্ডারসহ বেশ কিছু প্রকল্পের টাকা ঢুকছিল না, তারা তো টাকা পাবেনই।

তীব্র গরমে কারেন্ট থাকবে না, মহা ভোগান্তিতে রাজ্যবাসী, নবান্নের পদক্ষেপ।

তার সঙ্গে যারা এবার দুয়ারে সরকারে নতুন লক্ষ্মীর ভান্ডারসহ বিভিন্ন প্রকল্পে আবেদন করেছেন তারাও টাকা পাবেন। তবে নতুন আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে একাউন্টে টাকা ঢুকতে একটু সময় লাগতে পারে। ১ এপ্রিল থেকে রাজ্য জুড়ে দুয়ারে সরকার কর্মসূচি হয়েছে। প্রথমে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত দুয়ারে সরকার ক্যাম্প চালু করার ঘোষণা করা হয়েছিল। তবে পরবর্তী সময়ে রাজ্য সরকার ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সেই সময়সীমা বাড়িয়ে দেয়। ১ থেকে ১০ এপ্রিল আবেদনপত্র গ্রহণ করা হয়।

প্রতি মাসে 1500 টাকা দিচ্ছে সরকার, কিভাবে পাবেন, বিস্তারিত জেনে নিন

আর ১০ এপ্রিলের পর থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত পরিষেবা প্রদানের কাজ চলবে বলে জানানো হয়। সামনেই পঞ্চায়েত ভোট Panchayat Election তবে এখনো পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে জুন- জুলাই এর আগে সেই পঞ্চায়েত নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট কম। তাই এবার সামাজিক প্রকল্পে যে সমস্ত একাউন্টে উপভোক্তারা এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন কারণে টাকা পাননি, তাদের একাউন্টে খুব শিগগিরই টাকা ঢুকতে চলেছে।
Written by R. Ghosh.

স্টেট ব্যাংক দেবে সারাজীবন, সংসারের সমস্ত খরচ, জানতে এখানে ক্লিক করুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(100) ""