শিক্ষা

Madhyamik Exam – মাধ্যমিক পরীক্ষার খাতা চেক নিয়ে বড় গণ্ডগোল! কোন সমস্যার মুখে শিক্ষক-শিক্ষিকারা?

Adv

গত ৪ মার্চ শেষ হয়েছে এ বছরের Madhyamik Exam. সাধারণ ভাবেই পরীক্ষার শুরু হওয়ার আগে পর্যন্ত দুর্দান্ত প্রিপারেশন নিলেও, পরীক্ষা শেষে রেজাল্ট কেমন হবে, সেই নিয়ে অভিভাবক থেকে পরীক্ষার্থী সকলের মনেই চিন্তা থাকে। এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল প্রায় ৬ লক্ষ ৯৮ হাজার ৯২৮ জন। তাদের মধ্যে ছাত্রের সংখ্যা ছিল ২ লক্ষ ৯০ হাজার ১৭২ জন এবং ছাত্রীর সংখ্যা ৩ লক্ষ ৫৬ হাজার ২১ জন। Madhyamik Exam শেষ হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই শিক্ষক-শিক্ষিকাদের খাতা সংগ্রহের দিন ঘোষণা করল পর্ষদ।

Madhyamik Exam এর খাতা চেক কীভাবে হবে?

কোন কোন সংগ্রহ করা যাবে খাতা? সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, চলতি মাসের ৫ দিন উত্তরপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা। আগামী ১০ মার্চ, ১১ মার্চ, ১৩ মার্চ, ১৫ মার্চ, ১৯ মার্চ দেওয়া হবে উত্তরপত্র। তবে উত্তরপত্র সংগ্রহের প্রথম দিনেই রাজ্য সরকারি কর্মীরা ধর্মঘট ডাক দিয়েছেন। বিশেষত, বকেয়া ডিএ এর দাবিতেই এই ধর্মঘটের ডাক।

Ad

নবান্নের নয়া বিজ্ঞপ্তি 3% নয় 6% DA, তাহলে মিনিমাম কত বাড়ছে বেতন?

ইতিমধ্যে এ বিষয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এই কাজের জন্য প্রধান পরীক্ষকেরা এদিন স্কুল ছুটিও নিতে পারবেন। কিন্তু নিজের দায়িত্ব অবহেলা করা যাবে না, এমনটা পর্ষদের তরফে নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানানো হয়েছে।

নির্দেশিকায় কি জানানো হয়েছে?
পর্ষদের ওই নির্দেশিকায় প্রধান পরীক্ষকদের ২০০৪ সালের ১৭ ও ১৯ নম্বর ধারা আবারও মনে করিয়ে করিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া এও বলা হয়েছে, যদি কোনও শিক্ষক-শিক্ষিকা বা প্রধান পরীক্ষক উত্তরপত্র সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে বা মূল্যায়ন করার ক্ষেত্রে কোনও রকম গাফিলতি করেন এবং তা ধরা পড়ে, তাহলে পর্ষদের তরফে আইনানুগ পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

উত্তরপত্র সংগ্রহ করার পর তা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে দ্রুত জমা দিতে হবে। শিক্ষক- শিক্ষিকা বা প্রধান পরীক্ষকের দায়িত্বে থাকা উত্তরপত্র হারিয়ে গেলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে উত্তরবঙ্গের তুফানগঞ্জে খাতা হারানোর ঘটনা ঘটেছিল। তখন একজন শিক্ষক খাতা নিয়ে যাওয়ার সময় খাতাগুলি পড়ে গিয়েছিল।

 উচ্চমাধ্যমিকের খাতা দেখা নিয়ে শিক্ষকদের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলো সংসদ।

পরে অবশ্য খাতাগুলি পাওয়া গেছিল। এমন ঘটনা আর যাতে না ঘটে, সে দিকে নজর রাখা হচ্ছে। তবুও নির্দেশিকা অনুসারে, পরীক্ষক এবং শিক্ষক- শিক্ষিকাদেরও সতর্ক করা হয়েছে। কিন্তু উত্তরপত্র সংগ্রহের প্রথম দিনই (আগামী ১০ মার্চ) রাজ্য জুড়ে ধর্মঘটের ডাক, যার জেরে উত্তরপত্র সংগ্রহে সামান্য হলেও প্রভাব ফেলতে পারে, বলে মনে করছেন শিক্ষক-শিক্ষিকাদের একাংশ।
Madhyamik Exam সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(101) ""