পশ্চিমবঙ্গের খবর

Mamata Banerjee – পশ্চিমবঙ্গে পুলিশের কাজকর্ম নিয়ে বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী, দিলেন কড়া নির্দেশ।

Adv

পুলিশ এর একাংশের ভুমিকা নিয়ে আমজনতা থেকে মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) সবাই বিরক্ত এবং তার ফলে গোটা পুলিশ ডিপার্টমেন্ট (WB Police Department) এর বদনাম হচ্ছে। আমজনতার মুখে রাস্তাঘাটে মাঝে মাঝেই পুলিশদের ভুমিকা নিয়ে অভিযোগ শোনা যায়। প্রায় মাঝে মধ্যেই আমজনতার মুখে শোনা যায় রাস্তাঘাটে গাড়ি থামিয়ে পুলিশি হেনস্থার অভিযোগ। আর এর মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যের পুলিশমন্ত্রী (WB Police Minister) মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় নিজেই বীতশ্রদ্ধ পুলিশের একাংশের ভূমিকা নিয়ে।

Mamata Banerjee Say Important Statement About State Police.

তিনি বললেন (WB CM Mamata Banerjee) মানুষ গাড়ি নিয়ে রাস্তায় যাবে, আইনত কারণ থাকলে, নিশ্চয়ই জরিমানা করবেন, কিন্তু আইন যদি না থাকে, আপনি নিজে কেন টাকাটা পকেটে নেবেন?’ অর্থাৎ তিনি ঘুরিয়ে পুলিশের ঘুষ (Bribery) নেওয়াকেই নিশানা করেছেন। সোমবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের (TMCP) প্রতিষ্ঠা দিবসের সমাবেশে বক্তব্য রাখার সময়, তা নিজেই স্পষ্ট করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা (TMC Suprimo Mamata Banerjee) পুলিশের একাংশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগও তুললেন খোদ পুলিশমন্ত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী।

Ad

বললেন, ‘ইদানিং আমি একটা প্রবণতা দেখছি। কেউ কেউ বেআইনি কাজ করছে। আর পুলিশ সেটা চোখ বুজে দেখছেন।’ যদিও মুখ্যমন্ত্রীর (Mamata Banerjee) বক্তব্য, গোটা পুলিশ বাহিনীকে নয়, নির্দিষ্ট একটি অংশের পুলিশকর্মীরাই (West Bengal Police) এই ধরনের কাজ করছেন। বললেন, ‘সব পুলিশ নয়, তাঁরা তো কাজ করেন সারাদিন। তাঁরা আমার পরিবারের লোক।’

WB Finance Department (পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অর্থদফতর)

এই বলেই মুখ্যমন্ত্রী উর্দিধারীদের একাংশকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বললেন, ‘লোকাল থানায় যাঁরা দায়িত্বে আছেন, বেশিরভাগ কী করছেন? আমি আর বললাম না। আমি যেমন অ্যান্টি রাগিং সেল (Anti Ragging Cell) তৈরি করেছি, আমি অ্যান্টি কোরাপশন সেলও (Anti Coraption Cell) তৈরি করেছি বাংলায়, মনে রাখবেন। আমরা নজর রাখছি, কে কী করছেন, না করছেন।’

Snehaloy Housing Scheme – রাজ্যের গরিব ও মধ্যবিত্ত মানুষদের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর বড় উপহার।

এদিন মুখ্যমন্ত্রীর (Mamata Banerjee) বক্তব্যের পর সন্ধ্যায় বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী আবার পুলিশ প্রশাসনকে দলীয় কাজে ব্যবহারের অভিযোগ তুলেছেন। তিনি বললেন, ‘পুলিশকে দিয়ে পঞ্চায়েত ভোট, পুর ভোট লুঠ করায়। আর পুলিশ তো একা খায় না। এরা সবসময় উঁচু পদের অফিসারদের বাঁচিয়ে দেয়, আর নীচু তলার কর্মীদের উপর অ্যাকশন নেয়। পুলিশ কখনও নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারে না। কিন্তু একজনের জন্য সকলকে দোষী সাব্যস্ত করা ঠিক নয়।

LPG Gas Price – ভোটের আগে রান্নার গ্যাসের দাম কমলো মোদী সরকার। পশ্চিমবঙ্গে দাম কত হল?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(106) ""