অর্থনীতি

Indian Currency Notes – 100, 200, 500 টাকার নোট নিয়ে নির্দেশিকা জারি ব্যাংকের, ফের সমস্যায় পড়তে চলেছেন সাধারণ মানুষ?

Adv

চাকরি থেকে ব্যবসা, যেকোনো কাজের পারিশ্রমিক হিসেবে টাকাকেই গণ্য করা হয়। ২০১৬ সালের নোটবন্দির সেই মুহুর্ত আজও অনেকে ভুলতে পারেননি। (Indian Currency Notes 500, 1000 rs) ৮ নভেম্বরের সেই রাত, যখন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৫০০ টাকার এবং ১০০০ টাকার নোট বন্ধের ঘোষণা করেছিলেন। পরের দিন সকাল থেকেই নোট পাল্টানোর জন্য বিভিন্ন ব্যাংকের শাখায় লাইন লেগেছিলো গ্রাহকদের। এরপর আবার দীর্ঘ ৭ বছর পর ২০০০ টাকার নোট বাজার থেকে সম্পূর্ণভাবে তুলে নেওয়ার জন্য RBI এর তরফে জারি করা হল বিজ্ঞপ্তি। সেই নিয়ে নতুন করে চিন্তিত সকল গ্রাহকেরা।

Indian Currency Notes

তবে সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে ১০০, ২০০ ও ৫০০ টাকার নোট (Indian Currency Notes) নিয়ে বড়োসড়ো আপডেট মিলল। কতটা সমস্যায় পড়তে চলেছেন সাধারণ মানুষ? বিশেষত, গত ১৯ মে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার তরফে ঘোষণা করা হয়েছিল, ২,০০০ টাকার নোটের সার্কুলেশন বন্ধ করা হয়েছে। বাজার থেকে ২,০০০ টাকার সমস্ত নোট তুলে নেওয়া হবে। তবে নোট বাতিলের প্রসঙ্গে কোনো কথা বলা হয়নি।

Ad

তাই ব্যাংকগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, কোনো গ্রাহককে যেন ২,০০০ টাকার নোট না প্রদান করা হয়। এর জন্য অবশ্য ব্যাংকের নির্দিষ্ট শাখাগুলিতে গিয়ে টাকা বদলানোর বিষয়েও আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকের শাখায় গিয়ে বদলানো যাবে এই নোট। তার বদলে সমমূল্যের নোট পাবেন গ্রাহকেরা। ২০১৬ সালের ৫০০ টাকা এবং ১,০০০ টাকার নোট বন্দির পর ২,০০০ টাকার নোট বাজারে চালু করা হয়েছিল (Indian Currency Notes)।

RBI এর রিপোর্ট অনুসারে, ২০২০-২১ অর্থবছরে এবং ২০২১-২২ অর্থবছরে ২০০০ টাকার একটি নোটও ছাপা হয়নি। ইতিমধ্যেই এই নোটের ১০% বাজার থেকে তুলে নেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। ধীরে ধীরে এই নোটের বাকি পরিমানও তুলে নেওয়া হবে। তার মাঝেই ১০০, ২০০, ৫০০ টাকার নোট নিয়ে নয়া আপডেট মিলল। কতটা সমস্যায় পড়তে হবে সাধারণ মানুষকে? পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে, পুরনো বা নষ্ট হয়ে যাওয়া ১০০, ২০০ ও ৫০০ টাকার নোট, PNB এর যেকোনও শাখায় গিয়ে কোনো সমস্যা ছাড়াই গ্রাহকেরা পাল্টে নিতে পারবেন।

আগামী মাস থেকে ব্যাংকের নিয়ম বদল, সেভিংস ও FD একাউন্টের টাকা তুলতে হলে মানতে হবে এই নিয়ম।

এমনকি PNB শাখার গ্রাহক না হলেও পরিচয়পত্র হিসেবে আধার কার্ড দেখিয়ে এই নোট বদলে ফেলার সুযোগ পাবেন। শুধু তাই নয়, এর বদলে সমমূল্যের নতুন চকচকে নোট দেওয়া হবে ব্যাংকের তরফে।RBI বার্ষিক রিপোর্টে নোট ছাপানোয় কত টাকা খরচ হয়, তার বিবরণ দিয়ে থাকে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে RBI এর রিপোর্ট অনুসারে, নোট ছাপাতে ৪.০১২ কোটি টাকা (Indian Currency Notes) খরচ হয়েছিল। অনেকেই জানেন না, RBI এর নির্দেশ অনুসারে, পুরনো নোট বা নষ্ট হয়ে যাওয়া নোট যে কোনও ব্যাংকের যে কোনও শাখায় গিয়ে গ্রাহকেরা বদলাতে পারবেন।

আর গ্রাহকেরা পুরনো নোট বা নষ্ট হয়ে যাওয়া নোট বদলাতে এলে ব্যাংককে তা বদলে দিতে হবে। কোনও ব্যাংক কর্মী নোট বদলে অস্বীকার করলে তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানানো যাবে। পাশাপাশি RBI এর কাছেও অভিযোগ জানানো যাবে। তাহলে আরবিআই ওই কর্মীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে। অনেকেই নোট নষ্ট হলে বা ছিঁড়ে গেলে তা পাল্টান না। আবার পাল্টাতে যেতে ভয়ও পান, যদি পাল্টে দেওয়া না হয়।

এমনকি আরবিআই এর নির্দেশিকা অনুসারে, কোনো গ্রাহক কোনো দুইভাগ করা নোট নিয়ে আসে, সেটিও বদলে দিতে বাধ্য ব্যাংক। সেক্ষেত্রে ধরা যাক, ব্যক্তি আধ ছেড়া ১০০ টাকার একটি নোটের দুটি টুকরোই বদলানোর জন্য ব্যাংকে নিয়ে গেলেন। RBI এর নির্দেশিকা অনুসারে, ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ওই নোট বদলে দিতে বাধ্য। তবে ১০০ টাকার বদলে ৫০ টাকা দেওয়া হবে। কারণ এই ধরনের ছেঁড়া নোটের ক্ষেত্রে বদলানো হলে অর্ধেক মূল্য মানের নোট দেওয়া হয়।

500 টাকার নোট নিয়ে বড় ঘোষণা করলো RBI. নতুন নোট আসতে চলেছে?

কোন কোন ক্ষেত্রে Indian Currency Notes বদলানো হয় না?
কোনো ছেঁড়া বা নষ্ট নোটের মহাত্মা গান্ধির ছবি, অশোক স্তম্ভ, সিকিউরিটি মার্ক বা রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নরের সই সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে থাকে। তাহলে সেক্ষেত্রে সেই নোট ব্যাংক কর্তৃপক্ষের তরফে বদলে দেওয়া হবে না।
এই সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(91) ""