প্রকল্প

PM Mandhan Yojana – নতুন প্রকল্প শুরু হল। প্রতিমাসে টাকা পাবেন। কিভাবে আবেদন করবেন?

Adv

আমাদের দেশে রাজ্য সরকার বা কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে নানা ধরণের প্রকল্প (PM Mandhan Yojana) নিয়ে আসা হয়েছে। কিন্তু এমনই অনেক প্রকল্প আছে যার সম্পর্কে এখনো পর্যন্ত অনেকেই জানেন না। আর এই কারণের জন্য এই সকল প্রকল্পের সুবিধাও আমরা ভোগ করতে পারি না। আজকে আমরা এমনই এক প্রকল্প সম্পর্কে জেনে নিতে চলেছি।

PM Mandhan Yojana Benefits.

আমরা জানি যারা সরকারি চাকরি করেন তারাই বয়সকালে অবসর এর পর পেনশন পান। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi) দেশের সাধারন মানুষ যারা চাকরি করেন না ব্যবসা, কৃষি কাজ, কুটির শিল্প এই সব করেই চলে তাদের বয়সকালে যাতে অসুবিধা না হয় তার জন্যে পেনশন (PM Mandhan Yojana) চালু করেছেন মোদী সরকার (Modi Government).

প্রধানমন্ত্রীর অটল পেনশন যোজনা (Atal Pension Yojana) থেকে জনধন যোজনা (Jan Dhan Yojana) এমন অনেক পেনশন যোজনা (Pension Scheme) চালু করেছেন সাধারন মানুষদের জন্যে। আজ আপনাদের সাথে এমনই একটি পেনশন স্কীম এর কথা বলব। তবে এই PM Mandhan Yojana পেনশন স্কীমটি শুধুমাত্র কৃষকদের জন্য। চলুন জেনে নিন স্কীম সম্পর্কে।

PM Mandhan Yojana 2024

প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের কথা সব সময়ই ভাবেন তাই কৃষকদের সুবিধার জন্য নানা রকমের প্রকল্প (PM Mandhan Yojana) চালু করেছেন। তেমনই প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের ভবিষৎ সুরক্ষার কথা ভেবে একটি পেনশন স্কীম চালু করেছেন। যা হল প্রধানমন্ত্রী কিষান মানধন যোজনা। আপনার বয়স যদি 18 বছর এর বেশি হয় এবং আপনি যদি এই প্রকল্পে আবেদন করতে চান তাহলে।

আপনার নিকটবর্তী ব্যাংকে গিয়ে মাসিক কিস্তিতে আজকেই বিনিয়োগ করা শুরু করে দিন প্রধানমন্ত্রী কিষান মানধন যোজনায় (Mandhan Yojana). অল্প বিনিয়োগে এই পরিকল্পনা আপনাকে অবসর সময় বাম্পার টাকা রিটার্ন দেবে। আর এই প্রকল্প অনেকদিন আগেই শুরু করা হয়েছিল এবং এর সুবিধা অনেকেই ভোগ করছেন। কিন্তু এখনো অনেকেই এই সম্পর্কে কিছুই জানেন না।

Cooking Oven (রান্নার ওভেন)

কত টাকা বিনিয়োগ করবেন?

এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে হলে একজন বিনিয়োগকারীকে অবশ্যই 18 বছর বয়সি হতে হবে। বিনিয়োগকারীর বয়স যদি 18 বছর হয় তাহলে 60 বছর বয়স পর্যন্ত 55 টাকা করে বিনিয়োগ করতে হবে। 30 বছর বয়স হলে 110 টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। অর 40 বছর বয়স্ক কোনো ব্যক্তিকে এই পরিকল্পনার সুবিধা নিতে হলে 200 টাকা করে প্রতিমাসে বিনিয়োগ করতে হবে (PM Mandhan Yojana).

লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের বেশি টাকা একাউন্টে ঢুকতে চলেছে। মা বোনেদের জন্য সুখবর।

60 বছর বয়স পর্যন্ত এই স্কিমে নির্দিষ্ট হারে বিনিয়োগ করলে নির্ধারিত সময় শেষে মাসিক কিস্তিতে টাকা রিটার্ন পাবেন বিনিয়োগকারী অর্থাৎ 3 হাজার টাকা প্রতি মাসে বিনিয়োগকারীর একাউন্টে পেনশন জমা করবে সরকার অর্থাৎ প্রতি বছর 36 হাজার টাকা পেনশন পাবেন একজন পেনশনভোগী এই প্রকল্প থেকে। এই PM Mandhan Yojana সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Ananya Chakraborty.

স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকলেই প্রাইভেট হাসপাতালে আর ইচ্ছে মতো চিকিৎসা নয়। নিয়ম বেঁধে দিলো রাজ্য সরকার।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(101) ""