প্রকল্প

ডিসেম্বর মাসে ২৫ কেজির বদলে ১৫০ কেজি চাল পেতে চলেছেন রেশন গ্রাহকরা। বড়ো সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের

Adv

একদিকে যেমন রেশন নিয়ে দুর্নীতি বন্ধ করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার তথা বিভিন্ন রাজ্যের রাজ্য সরকারের তরফে নানাধরনের অভিনব পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। অন্যদিকে, ঠিক তেমনভাবেই কেন্দ্রীয় সরকার হোক বা রাজ্যগুলির রাজ্য সরকার উভয়ের তরফেই সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা মাথায় রেখে নানাধরনের সিদ্ধান্তও কার্যকরী করা হচ্ছে। আর এবারে রাজ্য সরকারের তরফে রেশন ব্যবস্থা সংক্রান্ত এমন এক সিদ্ধান্ত কায়েম করা হলো, যার ফলে আখেরে লাভবান হতে চলেছেন সমগ্র রাজ্যবাসী। বিভিন্ন রিপোর্ট অনুযায়ী জানা গিয়েছে যে, আগামী দিনে আরও বেশি পরিমাণে চাল পেতে চলেছেন রেশন গ্রাহকরা।

মনে করা হচ্ছে ভারত বর্তমানে যে টালমাটাল অর্থনৈতিক অবস্থার সম্মুখীন হয়েছে তা কাটিয়ে উঠত এবং রাজ্যবাসীকে আরও খানিক সাহায্য করার জন্য এই সিদ্ধান্ত কার্যকরী করা হয়েছে।

Ad

বন্ধ করা হলো স্কুল পড়ুয়াদের স্কলারশিপ, স্কুলে পড়লে আর পাওয়া যাবে না স্কলারশিপ

ছত্রিশগড়ের রাজ্য সরকারের তরফে ওই রাজ্যের রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে জানানো হয়েছে যে, ইতিপূর্বে রেশন গ্রাহকরা রেশনে ২৫ কেজি করে চাল পেতেন, তবে বর্তমানে তার পরিবর্তে নূন্যতম ১৩৫ কেজি চাল পেতে চলেছেন সমগ্র ছত্রিশগড়ের রেশন গ্রাহকরা। এর পাশাপাশি আরও জানা গিয়েছে যে, রাজ্য সরকারের তরফে নূন্যতম ১৩৫ কেজি থেকে শুরু করে ১৫০ কেজি পর্যন্ত চাল দেওয়া হবে রেশন গ্রাহকদের। রাজ্য সরকারের তরফে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই চাল তাদের প্রদান করা হবে। যদিও অন্য যেকোনো প্রকল্পের মতো রাজ্য সরকারের তরফে দেওয়া বিনামূল্যের রেশন নিতে গেলেও বেশ কতোগুলি শর্ত পূরণ করতে হবে ছত্রিশগড়ের রাজ্যবাসীকে। এই বিষয়ে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে যে, কেবলমাত্র বিপিএল কার্ড রয়েছে এইরূপ নাগরিকরাই এই বিশেষ সুবিধা পাবেন। আগামী দিনে এই নতুন স্কিমের আওতায় ছত্রিশগড়ের রাজ্য সরকারের তরফে, বিপিএল কার্ডধারী ব্যক্তিদের ৪৫ কেজি থেকে শুরু করে ১৩৫ কেজি পর্যন্ত চাল দেওয়া হবে।

ইতিপূর্বে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সমগ্র দেশের সাধারণ নাগরিকদের কথা মাথায় রেখে যে বিনামূল্যে চাল দেওয়ার প্রক্রিয়া আরম্ভ করা হয়েছিলো তা এখনও পর্যন্ত বন্ধ করা হয়নি। ইতিপূর্বে বারংবার এই যোজনা বন্ধ করার প্রস্তাব রাখা হলেও এখনও পর্যন্ত তা কার্যকরী করা হয়নি। যার কারণে অন্যান্য রাজ্যের রাজ্যবাসীর মতোই ছত্রিশগড়ের বাসিন্দারাও রীতিমতো দোলাচলে ছিলেন। আর এরই মধ্যে রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তে যথেষ্ট খুশি সমগ্র রাজ্যের বাসিন্দারা। সুতরাং, আপনিও যদি ছত্তিশগড়ের বাসিন্দা হয়ে থাকেন তবে আপনিও আগামী দিনে ৪৫ কেজি থেকে শুরু করে ১৩৫ কেজি এমনকী ১৫০ কেজি পর্যন্ত চাল পেতে চলেছেন এই নতুন স্কিমের অধীনে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(106) ""