প্রকল্প

Ration Card – রেশন কার্ড থাকলেও 30 জুনের পর মিলবে না বিনামূল্যে চাল, গম অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী, কেন?

Adv

Ration Card ছাড়া তোলা যাবে না খাদ্য সামগ্রী। তবে যদি রেশন কার্ড থাকেও, তাও মিলবে না রেশন? কেন এই সিদ্ধান্ত সরকারের? অতিমারীর আবহে যখন গোটা দেশে বাণিজ্যর দিক থেকে আর্থিক ক্ষয় ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছিল। বহু সাধারণ মানুষ আর্থিক অস্বছলতার থেকে বাঁচতে পেশা বদল করতে বাধ্য হয়েছিলেন। সেই সময় প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ অন্ন যোজনা বা PM-GKAY চালু করা হয়েছিল। এই যোজনার মাধ্যমে দেশের আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া ৮০ কোটির বেশি পরিবারকে বিনামূল্যে চাল, গম ও অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী প্রদান করা হয়।

আপনি কী পাবেন বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী, এই পদ্ধতিতে Ration Card চেক করুন।

বর্তমানে এই যোজনা চালু রয়েছে। কিন্তু আগমায় ৩০ জুনের পর এই সুবিধা পাবেন না দেশবাসী।বিশেষত, ডিজিটাল ভারত গড়ার প্রক্রিয়া চালু রয়েছে। যেখানে আধার কার্ড সহ অন্যান্য নথির মতো ডিজিটাল Ration Cardও তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সরকারিভাবে। তাই বিনামূল্যে রেশনের সুবিধা পেতে হলে ডিজিটাল রেশন কার্ড আপডেট করতে হবে। অবশ্য এর জন্য রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিংক করাটা জরুরি।

Ad

এর আগেও এই দুটি কার্ড লিংক করা নিয়ে কার্ড হোল্ডারদের জানানো হয়েছিল। প্যান কার্ডের সঙ্গে আধার কার্ড লিংকের মতো রেশন-আধার লিংকের শেষ তারিখ হিসেবে গত ৩১ মার্চ, ২০২৩ তারিখটি ধার্য করা হয়েছিল। পরে সময়সীমা আরও ৩ মাসের জন্য বাড়ানো হয়েছে। যদিও কেন্দ্রীয় খাদ্য সরবরাহ মন্ত্রক সূত্রে খবর, আগামী ৩০ জুন, ২০২৩ রেশন-আধার লিংকের শেষ তারিখ। এই সময়ের মধ্যেই সংযুক্তিকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

এরপর আর সময়সীমা আর বাড়ানো হবে না। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রেশন-আধার কার্ডের লিংক না করালে আগামী ১ জুলাই থেকে রেশন দেওয়া বন্ধ করে দেওয়া হবে। ভুয়ো রেশন কার্ড বাতিল, বেআইনিভাবে কোনো ব্যক্তি যাতে একাধিক রেশন কার্ডের অধিকারী না হতে পারেন তা নিশ্চিত করার জন্যই লিংকের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কিভাবে জানবেন আপনি রেশন পাবেন কিনা?
প্রথমত জানিয়ে রাখি আধার-রেশন কার্ড লিংক না করানো হলে পাওয়া যাবে না রেশন। অনেকেই আছেন সময়ের আগেই লিংক সেরে ফেলেছেন। কিন্তু জানেন না টেকনিক্যাল কারণে ঠিক করে লিংক হয়েছে কিনা। সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সময়সীমা পেরোনোর আগে জানতে হবে কার্ড লিংক করা রয়েছে কিনা।

মে মাসে কোন ক্যাটাগরীর রেশন কার্ডে কত কিলো চাল গম পাবেন? সাথে অতিরিক্ত কী কী পাবেন, দেখুন।

তা জানার জন্য-
প্রথমে খাদ্য দফতরের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে।অফিশিয়াল ওয়েবসাইট-
https://food.wb.gov.in/ এরপর ‘Ration Card’ অপশনে ক্লিক করে ‘Check the status of your Ration Card’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। রেশন কার্ড নম্বর দিয়ে এবং ক্যাটাগরী সিলেক্ট করে স্ক্রিনে দেওয়া ‘Captcha Code’ দিতে হবে। এরপর Search অপশনে করতে হবে।

Ration Card এর স্ট্যাটাস ‘Active’ দেখালে চিন্তার কারণে নেই। রেশন দোকানে গেলে পাওয়া যাবে খাদ্য সামগ্রী। যদি ‘Deactive’ লেখা থাকে তবে আপনাকে রেশন কার্ডের দেখায় সেক্ষেত্রে আধার কার্ড লিংক করতে হবে। বাড়িতে বসে রেশন কার্ডের সঙ্গে আধার নম্বর লিংক করার পদ্ধতি-
খাদ্য দফতরের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে।অফিশিয়াল ওয়েবসাইট-
https://food.wb.gov.in/

এরপর ‘Do E-KYC’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। নতুন একটি পেজ ওপেন হবে। ‘Link Aadhaar with Deactivated/Newly Approved Cards’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। নতুন পেজ ওপেন হলে রেশন কার্ড নম্বর এবং ক্যাটাগরি সিলেক্ট করে search অপশনে ক্লিক করতে হবে। এরপর ‘Link Aadhaar and Mobile no.’ অপশনে ক্লিক করে ‘Send OTP’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। মোবাইল নম্বরে যে OTP আসবে তা নির্দিষ্ট জায়গায় বসিয়ে ‘Submit’ করতে হবে। এরপর ভেরিফাই অপশন আসবে, সেখানে গিয়ে পূর্বে দেওয়া সমস্ত তথ্য আবারও চেক করতে হবে।

সর্ষের তেল সহ সকল ভোজ্য তেলের দাম মধ্যবিত্তের নাগালে, নতুন দাম সম্পর্কে জানুন।

এরপর ‘Verify and Submit’ অপশনে ক্লিক করলে দেখা যাবে Ration Card টি ‘Active’ হয়ে গেছে। যদি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে লিংক না করানো হয় রেশন কার্ড Deactivate হয়ে যাবে। এরপর খাদ্য সামগ্রীও মিলবে না। তাছাড়া যদি রেশন কার্ডে কোনো তথ্য ভুল থাকে, তাও পাওয়া যাবে না রেশন। তাই যত শীঘ্র সম্ভব এই কাজটি সেরে ফেলুন।
এই সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(95) ""