ব্যাবসা

Best Business Idea – একটু পরিশ্রম, স্বল্প পুঁজি, আর একটু বুদ্ধি দিয়ে শুরু করে দিন এই ব্যবসা, মুনাফা হবে সারা বছর।

Adv

শীত গ্রীষ্ম বর্ষা বছরের যে কোনো সময় শুরু করা যাবে এমন Best Business Idea সম্পর্কে চিন্তা করেন প্রায় সকলেই। পাশাপাশি মুনাফা সম্পর্কেও ভাবা হয়নি কিন্তু মাঝে একটাই বাঁধা, তা হল পুঁজি কত লাগবে? ভবিষ্যতে ভালো মুনাফা দেবে এই কথা চিন্তা করলেও অনেকেই ব্যবসায় বেশি পুঁজি বিনিয়োগ করতে চান না। আজকে এমন একটি Best Business Idea দেওয়া হবে, যেটির মাধ্যমে ভালো মুনাফা লাভের পাশাপাশি শুরু করতে তেমন পরিকল্পনার প্রয়োজন নেই। এই জিনিসের চাহিদাও সাধারণ মানুষের কাছে একটু বেশিই। বিশেষত এই গরমে। তাই কোনো ব্যক্তি যদি এই গরমে Best Business Idea পেতে চান এবং ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবেন, তাহলে অবশ্যই শুরু করতে পারেন।

ব্যবসার নাম- মিনারেল ওয়াটারের ব্যবসা।
বাইরে বের হলে অনেকসময়ই জল শেষ হয়ে যায়। সেই সময় দোকান থেকে জলের বোতল কিনতে হয়। কিংবা অনেকে বাড়িতেও টাইম কলের জল খাওয়ার বদলে মিনারেল ওয়াটারের বড় জার কিনে থাকেন। পাশাপাশি অনুষ্ঠান বাড়িতেও অতিথি আপ্যায়নের জন্য জলের জার কেনা হয়। তাই এই ব্যবসার মাধ্যমে মাসে মাসে মোটা অঙ্কের লাভ করা সম্ভব। কেবলমাত্র বুঝতে হবে এই ব্যবসার কাস্টমার কারা? আর পরিকল্পনামাফিক ব্যবসা করতে হবে।

Ad

Best Business Idea টি জেনে নিন।

ব্যবসার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি কি কি?
মিনারেল ওয়াটারের ব্যবসা করতে হলে প্রয়োজন হবে
১ লিটারের বোতল,
২ লিটারের বোতল,
৫ লিটারের জার,
১০ লিটরের জার,
২০ লিটরের জার।

এছাড়া ব্যবসা শুরু জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি এবং অন্যান্য জিনিসপত্র কিনতে হবে। এক্ষেত্রে স্টোরেজ ট্যাঙ্ক ইত্যাদি লাগবে। মেশিনে জল ফিল্টার করার জন্য RO মেশিন কিনতে হবে। এই মেশিন বিভিন্ন ধরনের হয়। ব্যবসায় পুঁজি অনুসারে মেশিন কিনতে হবে। আরো একটি মেশিন কিনতে হবে, তা হল বোতলগুলি প্যাক করার জন্য প্রয়োজন হবে।

ট্রেড লাইসেন্স ছাড়া মাত্র 13000 টাকা দিয়ে এই ইউনিক ব্যবসা শুরু করুন, মাসে আয় হবে মোটা আয়।

তাছাড়া আর কোন কোন বিষয়গুলি খেয়াল রাখতে হবে?
১) ব্যান্ডের নাম দিতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে ব্যান্ডের নাম দেখে জলের বোতল কিনতে কোনো রকম সমস্যায় না পড়তে হয় ক্রেতাদের।
২) ল্যাব থেকে ফিড ওয়াটার টেস্ট রিপোর্ট বের করতে হবে।
৩) ব্যুরো অফ ইন্ডিয়ান স্ট্যান্ডার্ডস (BIS) থেকে আইএসআই সার্টিফিকেশন নিতে হবে। পাশাপাশি স্থানীয় দূষণ বোর্ড অফিস থেকে দূষণ নিয়ন্ত্রণ শংসাপত্র পেতে হবে।
৪) স্থানীয় প্রশাসনের থেকে ভেন্ডার লাইসেন্স নিতে হবে ওয়াটার প্ল্যান্ট স্থাপনের জন্য।

৫) রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে ব্যবসা শুরুর আগে অনুমতি নিতে হবে।
৬) ফার্ম রেজিস্ট্রেশন করাতে হবে এবং GST নিবন্ধনের জন্য আবেদন জানাতে হবে।
উল্লেখ্য, ব্যবসার জন্য একটি গাড়ি এবং ডেলিভারি করার লোকের প্রয়োজন হবে। সেক্ষেত্রে কোন ধরনের গাড়ি ব্যবহার করবেন, সেটি সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করবে জিনিসের চাহিদার উপর।

ইন্সটাগ্রামে ফলোয়ার না থাকলেও টাকা রোজগার করার 4 টি সহজ উপায় জেনে নিন।

কত টাকা লাভ হবে?
যদি ১ লিটারের বোতলের দাম দেখা যায়, সর্বোচ্চ প্রায় ৩-৪ টাকা খরচ হয়। তবে বাজারে এটি পাইকারি হিসেবে প্রায় ৬-৭ টাকায় বিক্রি করা হয়। অর্থাৎ একটি বোতলে কমপক্ষে ৩ টাকা লাভ হবে। দিনে যত লিটার জল বিক্তি হবে, তার উপর লাভের অঙ্ক নির্ভর করবে। একবার এই ব্যবসা দাঁড় করাতে পারলে প্রতি মাসে কমপক্ষে ২০ হাজার টাকা লাভ হবে।
Best Business Idea সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(106) ""