চাকরি

Dearness Allowance – পশ্চিমবঙ্গের ডিএ আন্দোলনকারীদের তালিকা তৈরী, 2 দিনের মধ্যে পদক্ষেপ নিচ্ছে প্রশাসন।

Adv

চলতি বছরে রাজ্য সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা বা Dearness Allowance এর হার ৩% বেড়ে মোট ৬% হয়েছে। কিন্তু এখনও পাননি কর্মীদের দাবী মতো বকেয়া ডিএ। তাই নতুন বছরের ৩% বর্ধিত ডিএ নিয়ে খুশি নন কর্মীরা। কেন্দ্রীয় হারে মহার্ঘ্য ভাতার দাবিতে লাগাতার ধর্ণা দিয়ে চলেছেন। গত ৭৫ দিন অর্থাৎ ২ মাসের উপর সরকারি কর্মীদের সংগঠন, সংগ্রামী যৌথ মঞ্চ আন্দোলন চালাচ্ছে। আর কোলকাতা ছাপিয়ে এবার এই মঞ্চের ডাকে দিল্লিতে ধর্নায় বসতে চলেছেন প্রায় ৫০০ জন সরকারি কর্মী। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, এবার তাদের বিরুদ্ধে সরকারের তরফে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে। কি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে?

বকেয়া DA এবং কেন্দ্রীয় হারে Dearness Allowance এর দাবিতে দফায় দফায় অনশন, আন্দোলন ধর্নায় বসেছেন রাজ্য সরকারি কর্মীরা। এর দাবিতে ফেব্রুয়ারী মাসের ২০ এবং ২১ তারিখে কর্মবিরতি পালিত হয়। গত মাসের ১০ তারিখও ধর্মঘট এবং ১৮ মার্চ সংগ্রামী যৌথ মঞ্চের ডাকে নন কোঅপারেশনের যোগদান করেছিলেন কর্মীরা। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি। মেলেনি বকেয়া DA. যার জেরে আন্দোলন আরো জোরদার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কর্মীরা।

Ad

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, গত ১০ এপ্রিল থেকে রাজ্য সরকারি কর্মীরা দিল্লিতে শুরু করেছে নতুন ধর্ণা কর্মসূচি। রাজ্যে Dearness Allowance না পাওয়ার অভিযোগেই দিল্লির দরবারে প্রায় ৫০০ জন সরকারি কর্মী। সংবাদ মাধ্যমের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, ডিএ এর দাবিতে দিল্লিতে রাজ্য সরকারি কর্মীরা ধর্নায় যোগদান করেছেন। মনে করা হচ্ছে, দর্নায় যোগদান করা সরকারি কর্মীদের বিরুদ্ধে নবান্নের পক্ষ থেকে কড়া পদক্ষপ নেওয়া হতে পারে। অবশ্য ইতিমধ্যেই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের তরফে ডিএ আন্দোলনকারীদের নিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

Dearness Allowance in West Bengal:

গত ১০ মার্চ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছিল। এদিন কোন কোন শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মী অনুপস্থিত ছিলেন, সব স্কুলের তরফ থেকে তাদের তালিকা পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। ১ মাস সময় পার হয়ে গেলেও এখনও সেই তালিকা পাঠানো হয়নি। বরং এখনও অনেক ডিআই সেই তালিকা তৈরি করছেন।পর্ষদের তরফে এও জানানো হয়েছে, অপরিকল্পিত ভাবে এই অনুপস্থিত শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের তালিকা জমা পড়ছে। প্রশাসনের নির্দেশ ২ দিনের মধ্যে সব স্কুলকে ওই দিন অনুপস্থিত শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের নামের তালিকা জমা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ডিএ আন্দোলনের মাঝেই সরকারি কর্মীদের জন্য নতুন নির্দেশিকা, নবান্নের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত।

ওইদিন ডিএ আন্দোলনে যোগদান করা শিক্ষকেরা হাতে শোকজ নোটিশ পেলেও একটুও বিচলিত হননি বলেই সূত্রের খবর। অন্যদিকে পর্ষদের তরফে আগেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানানো হয়েছিল, শোকজ পাওয়া শিক্ষকরা নিজস্ব কোনো বক্তব্য সরাসরি পর্ষদে পাঠাতে পারবেন না। তাদের সংশ্লিষ্ট জেলার ডিআই দের সেই চিঠি জমা দিতে হবে। এরপর ডিআই দের অনুপস্থিত শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের নামের তালিকা পর্ষদে পাঠাতে হবে।

প্রসঙ্গত, Dearness Allowance এর দাবিতে আন্দোলনের জেরে ওইদিন অনুপস্থিত শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের শোকজের নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। তবে অনেকক্ষেত্রেই দেখা গিয়েছে, তার জবাবে তারা ডিআই-কে চিঠি জমা দিতে গিয়ে মিষ্টিমুখ করেছেন, আবার অনেকে আবিরও খেলেছেন। এ নিয়ে অবশ্য তাদের দাবি, ধর্মঘট করা তাদের মৌলিক অধিকার। এতে সার্ভিস রুল ভেঙে যায় না।

তীব্র গরম ও তাপপ্রবাহে আগামী 5 দিন অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ও স্কুল কলেজ ছুটি ঘোষণা, ছুটি আরও বাড়তে পারে, জানালেন উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী।

পাল্টা সরকারের বিরুদ্ধে তাদের দাবি, সরকারের এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি বেআইনি। এর জেরে আইনি পথে যাওয়ার হুঁশিয়ারিও দেন কর্মীরা।
দিল্লিতে ধর্নায় বসলেও তা কতটা কার্যকরী প্রভাব ফেলবে? কর্মীদের দাবি আদৌ মেনে নেওয়া হবে কিনা সেই সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(99) ""