শিক্ষা

Free Smartphone – মাধ্যমিক পাশ করলেই 10 হাজার টাকা দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। কিভাবে এই টাকা পাবেন?

Adv

আজ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য দারুন সুখবর নিয়ে চলে এসেছি (Free Smartphone). মাধ্যমিক পাশ করলেই পরীক্ষার্থীরা পাবে 10 হাজার টাকা! কেন দেওয়া হবে এই টাকা? কিভাবে পাবে এই টাকা? আজ এই নয়ে বিস্তারিত আপনাদের জানাব। পড়ুয়াদের জীবনের প্রথম বড় বোর্ড পরীক্ষা হল মাধ্যমিক পরীক্ষা (Madhyamik Pariksha) এই বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষা গত ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম দিকেই হয়ে গিয়েছে।

Government Of West Bengal Provide Free Smartphone.

লোকসভা ভোটের কারনে মাধ্যমিক পরীক্ষা ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা এগিয়ে আনা হয়েছে। এইবারের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় অনেক নতুন নিয়ম আনা হয়েছিল এবং পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস রুখতেও কড়া ব্যবস্থা নিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ (WBBSE). মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা অপেক্ষা করছে পরীক্ষার ফলাফলের জন্যে। তবে আর বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের (Free Smartphone).

Ad

যা জানা যাচ্ছে তাতে মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যেই মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ পেলেও পেতে পারে। তবে যেহেতু দেশ জুড়ে লোকসভা ভোট চলছে তাই এই বিষয়ে আইনি কোনো বাধা আছে কিনা জানা যায়নি। সব যখন ডিজিটাল হচ্ছে। তখন পড়াশোনা কেন বাদ থাকে। উচ্চশিক্ষাও এখন অনেক ক্ষেত্রে প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে উঠেছে। ফলে আগার মত ক্লাস রুমে পড়াশোনার পাশাপাশি প্রযুক্তিভিত্তিক পড়াশোনারও দরকার (Free Smartphone).

তবে এই অনলাইন ক্লাস বেশি গুরুত্ব পেয়েছে করোনার সময় থেকে। তখন লক ডাউনের কারনে স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে অনলাইনে ক্লাস শুরু হয়। তবে গরিব ছেলে মেয়েরা যাতে টাকার অভবে ফোন কিনতে না পেরে পড়াশোনা বন্ধ না করে তার জন্যে রাজ্য সরকার দ্বাদশ শ্রেনীর পড়ুয়াদের ফোন বা ট্যাব কেনার জন্যে 10 হাজার টাকা (Free Smartphone) দেওয়া শুরু করে।

2020 সালে করোনার সময় থেকে তরুণের স্বপ্ন প্রকল্পের (Taruner Swapna Free Smartphone Scheme) মাধ্যমে এই উদ্যোগ নেয় পশ্চিমবঙ্গ সরকার (Government Of West Bengal). তারপর থেকে প্রত্যেক বছর তরুণের স্বপ্ন প্রকল্পের মাধ্যমে প্রত্যেক দ্বাদশ শ্রেনীর পড়ুয়াদের 10 হাজার টাকা তুলে দেওয়া হয়। তবে এবার থেকে মাধ্যমিক পাস পরীক্ষার্থীরাও পাবে 10 হাজার টাকা।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের শিক্ষা দফতরের তরফ থেকে এই টাকা পড়ুয়াদের দেওয়া হবে। এই টাকা পেতে পড়ুয়াদের আবেদন জানাতে হবে। আবেদন জানানোর পর আবেদন পত্র গ্রাহ্য হলে তারপর পড়ুয়াদের ব্যাংকে 10 হাজার টাকা (Free Smartphone) ঢুকবে। রাজ্য সরকার দ্বাদশ শ্রেনীর পড়ুয়াদের 10 হাজার টাকা দিত পড়াশোনার জন্য ট্যাব বা স্মার্টফোন কেনার জন্যে।

করোনার সময় থেকেই এই নিয়ম চালু করেছিল রাজ্য সরকার। তখন লকডাউনের কারনে পড়ুয়াদের অনলাইন ক্লাস করানো হত কিন্তু অনেক পড়ুয়া টাকার অভবে ফোন কিনতে না পারায় অনলাইন ক্লাস করতে পারতো না তাই সরকারে তরফ থেকে 10 হাজার টাকা দেওয়া হয় ফোন কেনার জন্য। তবে করোনা অতিত হলেও সরকার এখন ট্যাব বা ফোন কেনার জন্য টাকা (Free Smartphone) দেওয়া বন্ধ করেনি।

বরং এখন এই টাকা দ্বাদশ শ্রেণীতে না দিয়ে একাদশ শ্রেণীতে দেওয়া হবে। এতে সুবিধা হবে অনেক পড়ুয়ার। রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যে সব পড়ুয়ারা এই বছর মাধ্যমিক পাশ করবে এবং একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হবে তাদের কে ফোন কেনার জন্য 10 হাজার টাকা (Free Smartphone) দেওয়া হবে। আর এবারে মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশ করলেই মোবাইল কেনার টাকা পাবে পড়ুয়ারা।

Free Smartphone Scheme Apply Documents

এই টাকা পাবার জন্য পড়ুয়াদের মাধ্যমিক পাশ করতে হবে, একাদশ শ্রেনীর ভর্তির প্রমানপত্র দিতে হবে, আর লাগবে আধার কার্ড, মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড, ব্যাংকের পাসবই এর জেরক্স, অথবা বাতিল চেক বই জমা দিতে হবে। এই প্রকল্পের (Free Smartphone Scheme) জন্যে আবেদন কবে থেকে শুরু হবে সে বিষয়ে কিছু জানান হয়নি এখনো। তবে একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

WBCHSE HS Syllabus (উচ্চমাধ্যমিক নতুন সিলেবাস)

কোনো পড়ুয়া যদি মাধ্যমিক পাশ করার পর একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি না হয় তাহলে কিন্তু সে 10 হাজার টাকা পাবে না। প্রসঙ্গত, এই ট্যাব কেনার টাকা দেওয়া নিয়ে বিতর্ক হয়েছে প্রচুর। কারন এই নিয়ে অভিযোগ উঠেছে অনেক। রাজ্য সরকারের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও এমন প্রচুর পড়ুয়া ও তাদের পরিবার এই 10 হাজার টাকা দিয়ে Free Smartphone কেনেনি তার বদলে কোনো দোকান থেকে ভুয়ো রশিদ বানিয়ে স্কুলে জমা দিয়েছে।

সবার আগে মাধ্যমিক পরীক্ষার রেজাল্ট দেখুন। পড়ুয়ারা আজই জানুন। আর বেশি দেরি নেই!

পাশপাশি শিক্ষকদের একাংশের বক্তব্য এখন অফলাইনে ক্লাস শুরু হয়ে গিয়েছে তাই এই Free Smartphone কেনার জন্যে টাকা না দিয়ে বরং সেই টাকা খরচ করে সার্বিক শিক্ষা পরিকাঠামো গড়ে তুললে বেশি উপকার হত। আর যাই হোক এই সকল কিছুর মধ্যেও সরকারের তরফে এই স্কিমে টাকা দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে আবার। এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Ananya Chakraborty.

পশ্চিমবঙ্গের সিভিক ভলান্টিয়ারদের পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ শুরু হচ্ছে। কি কি সুবিধা বাড়ছে?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(103) ""