চাকরি

WB TET Scam মধ্যশিক্ষা পর্ষদের নয়া নির্দেশিকা জারি, চাকরি ফেরত শিক্ষকদের।

Adv

পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতি (WB TET Scam) নিয়ে একাধিক মামলা রয়েছে কোলকাতা হাইকোর্টে। আর তার মধ্যে অন্যতম একটি মামলার এদিন শুনানি ছিলচ কলকাতা হাইকোর্টে। একদিকে অভিজোগের পর ও চাকরিরত অবস্থায় শিক্ষকদের একাংশ অন্যদিকে চাকরি পাওয়ার জন্য যোগ্য প্রার্থীরা দিনের পর দিন আন্দোলন চালাচ্ছিলেন। নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় (WB TET Scam) একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসছিলো।

WB TET Scam latest update

এরপর কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশে গ্ৰুপ সি, গ্ৰুপ ডি এবং নবম ও দশম শ্রেণির (WBSSC) বেশ কয়েকজন শিক্ষকদের চাকরি বাতিল করা হয়। যার ফলে রিট পিটিশন ফাইল করেন শিক্ষকদের একাংশ। আর সেই মামলার শুনানিতে তাৎপর্য পূর্ণ সিদ্ধান্ত জানায় আদালত। উল্লেখ্য, সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, বর্তমানে ফের চাকরি যোগদান করতে পারবেন শিক্ষকরা।

Ad

WB TET Scam এ বাতিল হওয়া সকলেই কী স্কুলে যোগদান করতে পারবেন?

তবে কারা কারা চাকরিতে যোগদান করতে পারবেন?
প্রতিটি জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের নির্দেশিকা দিলো মধ্য শিক্ষা পর্ষদ (WBBSE). সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুসারে, গ্রুপ সি, গ্রুপ ডি এবং নবম ও দশম শ্রেণীর যে শিক্ষদের চাকরি গিয়েছিল, তারা আবারও স্কুলে যোগ দিতে পারবেন। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় নির্দেশে চাকরি বাতিল হয়েছিল।

Primary TET 2014 প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকরি সংশয়ে, CBI এর বিজ্ঞপ্তি, 15000 ভুয়ো শিক্ষক চিহ্নিত!

এরপর সেই মামলা সুপ্রিম কোর্টে পৌঁছোয়। উচ্চ আদালতে আবেদন জানান বাতিল শিক্ষকদের পক্ষ থেকে। শীর্ষ আদালতের নির্দেশে স্কুল সার্ভিস কমিশন মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে রেকমেন্ডশন পাঠিয়েছে। এরপর পর্ষদের তরফে প্রত্যেকটি জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের এই নিয়ে নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। কার্যত কলকাতা হাইকোর্টে শিক্ষকদের চাকরি বাতিলের নির্দেশ ধাক্কা খেলো সুপ্রিমকোর্টে। দেশের শীর্ষ আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, মধ্যশিক্ষা পর্ষদ এই নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যের প্রতিটি জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের (DI).

Primary TET Scam (প্রাথমিক শিক্ষক দুর্নীতি)

রাজ্যে চাকরিতে নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে ক্ষুদ্ধ মুখ্যমন্ত্রী, কি নির্দেশ দিলেন তিনি দেখুন।

গত সোমবার এ নিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছিল। সব মিলিয়ে প্রায় ৩ হাজারেরও বেশি শিক্ষকের চাকরি বাতিল হয়েছিল। আপাতত তারা চাকরিতে বহাল থাকছেন। স্কুলে নিয়মিত যেতে পারবেন শিক্ষক শিক্ষাকর্মীরা।

তবে চাকরি বাতিল হয়েছে যাদের, তারা সকলেই চাকরিতে যোগ দিতে পারবেন কিংবা কীভাবে চাকরিতে যোগ দেবেন সেটা সংশ্লিষ্ট জেলা স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শক ঠিক করবেন।
এই সংক্রান্ত খবরের নতুন আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবপোর্টালটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(100) ""