শিক্ষা

এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষা দিতে মানতে হবে এই 7 টি নিয়ম, পরীক্ষা দিতে যাওয়ার আগে জেনে নিন।

Adv

২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ মধ্য শিক্ষা পর্ষদের মাধ্যমিক পরীক্ষা (Madhyamik Pariksha). পরীক্ষা সম্পূর্ণরূপে ত্রুটিমুক্ত করতে চেষ্টার কোনো খামতি রাখেনি পর্ষদ। এই প্রেক্ষিতে একাধিক নিয়মও জারি করা হয়েছে। পরীক্ষা সংক্রান্ত সেই সব নিয়মগুলোই আরেকবার ঝালিয়ে নেওয়া যাক। এই প্রতিবেদনটি সকল পরীক্ষার্থীদের শেয়ার করার অনুরোধ রইলো।

মাধ্যমিক পরীক্ষার নিয়ম গুলি দেখে নিন।

আগামী ২৩শে ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। পরীক্ষা দিতে যাওয়ার আগে, এই নিয়ম গুলো অবশ্যই জেনে নেওয়া উচিত।
এক, মাধ্যমিক পরীক্ষার মোট সময়সীমা হলো ৩ ঘন্টা ১৫ মিনিটের। ১১ টা ৪৫ মিনিট থেকে ৩ টে অবধি পরীক্ষা হবে। ১১ টা ৪৫ মিনিটে ছাত্রছাত্রীদের প্রশ্নপত্র দেওয়া হবে। ১১.৪৫ থেকে ছাত্রছাত্রীরা প্রশ্নপত্র দেখে নেওয়া ও লেখার জন্য প্রশ্ন বাছাই করবে পারবে।

Ad

মাধ্যমিক পরীক্ষায় বাংলায় ভালো রেজাল্ট করতে এই উপায়গুলি মেনে চললেই চড়চড়িয়ে নম্বর উঠবে।

দুই, বেলা ১২ টার সময় ছাত্রছাত্রীদের উত্তরপত্র দেওয়া হবে। উত্তরপত্র পাওয়ার পর অ্যাডমিট থেকে দেখে দেখে নাম, রোল নং এবং রেজিষ্ট্রেশন নং নির্দিষ্ট স্থানে সতর্কভাবে লিখতে হবে।
তিন, প্রথম পাতায় যাবতীয় ডিটেইলস লেখা হয়ে যাবার পর পরের পাতা থেকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ভাবে উত্তর লেখা শুরু করতে হবে।
চার, ২ টা ৪৫ মিনিটে পরীক্ষা শেষের একটি ওয়ার্নিং বেল দেওয়া হবে।

পাঁচ, সমস্ত উত্তর লেখার পর সবগুলো সঠিক কিনা দেখে নিতে হবে।
ছয়, প্রতিটি পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষাকেন্দ্রে নির্দিষ্ট সময়ে ঢুকতে হবে।
সাত, পরীক্ষাকেন্দ্রে নির্দিষ্ট সময়ে ঢোকার পর কিছুক্ষণ শান্ত হয়ে বসতে হবে, যার ফলে পরীক্ষা দেবার সময় কোনোরকম মানসিক চাপ আসবে না। পরীক্ষার হলে কোনও প্রকার অসৎ উপায় অবলম্বন করা যাবে না। কারণ, অসৎ উপায় অবলম্বন খরতে গিয়ে ধরা পড়লে পরীক্ষা ক্যানসেল হয়ে যেতে পারে।

মাধ্যমিকের সাজেশন পেতে এখানে ক্লিক করুন

যা যা নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে যেতে হবে-
এক,
পরীক্ষার্থীর মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড ও রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট।
দুই, বেশ কয়েকটি কালো ও নীল বলপেন। সেগুলিতে যেন পর্যাপ্ত কালি থাকে। এরই সাথে পেনসিল বক্সে পেনসিন, রবার, সার্পনার ভরে নিতে হবে। স্কেলও নিতে হবে।
তিন, স্বচ্ছ জলের বোতল। চার, স্বচ্ছ বোর্ড।

 মাধ্যমিক জীবন বিজ্ঞান পরীক্ষা নিয়ে বিভ্রান্তি, রুটিন বদলের সম্ভাবনা।

পরীক্ষার হলে কোনও রকম বিশৃঙ্খলা না করে, নিজের উপর সম্পূর্ণ আত্মবিশ্বাস রেখে পরীক্ষা দিতে হবে। ছাত্রজীবনের প্রথম বড়ো পরীক্ষায় মাথা ঠাণ্ডা করে প্রস্তুত হলেই সহজে জয়ী হওয়া যাবে। আগামী ২৩ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে পরীক্ষা তাই এই কদিন ঠিক মতো রুটিন মেনে প্রস্তুতি নিলেই ভালো ফল করে সম্ভব। সর্বোপরি সকলকে ভালো পরীক্ষা দেওয়ার শুভাশিস রইলো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(96) ""