শিক্ষা

School Timing – পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষকরা সময়ের আগেই স্কুল থেকে ছুটি পাবে। নতুন ঘোষণা করা হল। কাদের জন্য? কবে থেকে শুরু?

Adv

পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যের স্কুল গুলোর ছুটির সময় নিয়ে নতুন ঘোষনা করা হল (School Timing). এবার স্কুল ছুটি (School Holiday) হওয়ার আগেই ছুটি নিতে পারবেন শিক্ষকরা!! তবে এই ঘোষনা সব শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের জন্যে নয়। তাহলে কাদের জন্যে? আর কেনই বা স্কুল ছুটির আগে ছুটি নিতে পারবেন তারা? এই প্রশ্ন নিশ্চই মাথায় ঘোরপাক খাচ্ছে? School Timing বা স্কুলের সময় কেন পরিবর্তন করা হল? সেই সম্পর্কে জানতে এই প্রতিবেদনটি পুরোটা পড়ুন।

School Timing Change By WBBSE For Ramzan Month.

নির্ধারিত সময়ের আগেই স্কুল থেকে ছুটি নিতে পারবেন শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীরা, এমনটা ঘোষনা করল পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ (WBBSE). তবে এই ছুটি সব শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীরা নিতে পারবে না। এই ছুটি শুধুমাত্র মুসলিম সম্প্রদায়ের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীরা নিতে পারবে। তারা দুপুর 3 টে 30 মিনিটে স্কুল থেকে ছুটি নিতে পারবেন। আর তারা এই সুযোগ পাবে 1 মাস (School Timing).

Ad

কারন তাদের এখন চলছে রমজান মাস (Ramzan) আর এই রমজান মাসের জন্যই রাজ্য সরকার এমন ঘোষনা করেছেন মুসলিম সম্প্রদায়ের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের জন্যে। কিন্তু পড়ুয়াদের পুরো স্কুল করতে হবে বলে জানিয়েছে পর্ষদ। বুধবার পর্ষদের তরফ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছে, 2011 সালের 2 রা আগস্ট রাজ্য সরকারের অর্থ দফতরের (WB Finance Department) তরফে যেই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল (School Timing).

সেটার ভিত্তিতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষকে জানানো হচ্ছে যে রোজার সময় পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অনুমোদন প্রাপ্ত স্কুল গুলোর মুসলিম শিক্ষক ও অশিক্ষাকর্মীরা দুপুর 3 টে 30 মিনিটে ছুটি নিতে পারবে। তবে সব মুসলিম শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীরা ছুটি নিতে পারবেন এমন নয় যারা চাইবেন তারাই নিতে পারবেন। তবে এই বিষয়টা নতুন নয় গত বছর ও ঈদের (Eid) আগে একমাস যখন রোজা চলছিল তখন মুসলিম শিক্ষক ও অশিক্ষাকর্মীদের বিশেষ এই সুবিধা দেওয়া হয়েছিল (School Timing).

Dearness Allowance (মহার্ঘ ভাতা)

যাতে তারা সারাদিনের উপোস ভেঙ্গে বিকেলের ইফতারে যোগ দিতে পারে। অনেকেই পরিবার ও বন্ধুবান্ধবদের সাথে ইফতার সারেন। তাই কিছুটা আগে স্কুল থেকে বেরিয়ে ওই শিক্ষক ও অশিক্ষাকর্মীরা বাড়ি ফিরে ইফতার সারতে পারেন সেটা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এক মাসের রোজার পর্বের পরে ঈদের ছুটি থাকবে রাজ্যের সব স্কুলে (School Timing).

সরকারি কর্মীদের জন্য বড় ঘোষণা। আবার DA বৃদ্ধি হল। সঙ্গে সব ভাতা বাড়ল।

ঈদ পালনের পরে যখন স্কুল খুলবে তখন স্কুল আগের মতই চলবে (School Timing). যখন স্কুল ছুটি হয় তখনই স্কুল থেকে বেরতে হবে সব শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের। তখন আর দুপুর 3 টা 30 মিনিটে কেউ ছুটি (Holiday) নিতে পারবে না। আর এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। সঙ্গে থাকুন এই ধরণের খবরের আপডেট পাওয়ার জন্য, ধন্যবাদ।
Written by Ananya Chakraborty.

প্রতিদিন মাত্র 160 টাকা জমিয়ে কোটিপতি হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে LIC এর এই নতুন পলিসি। দ্রুত বিনিয়োগ দ্রুত রিটার্ন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(102) ""