টেক নিউজ

Google – গুগেলের লোগোতে 4 টি রঙই থাকে কেন? আসল কারণ জানলে অবাক হবেন।

Adv

Google এমন একটা জিনিস যা সবার খুব দরকারি। ইন্টারনেট এর দুনিয়ায় Google ছাড়া প্রায় অচল। যেকোনো কিছু Search করতে কোন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে আমরা গুগেল ব্যবহার করি। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় Google এর মত বড় শিক্ষক নেই। মানুষ এখন কোনো কিছুর সম্পর্কে জানতে গেলে বই বা জার্নাল এই সবের থেকে গুগল বেশি ব্যবহার করে।

Google Logo Colors Information.

বই বা জার্নাল এ তথ্য খোঁজা প্রায় ছেড়ে দিয়েছে মানুষ। মানুষ এখন Google মুখী হয়েছে তার কারন একটাই যে, সময় কম লাগে । আপনি কিছু জানতে চাইলে গুগেলের Search Option এ লিখে সার্চ করলেই সেই জিনিস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য বেরিয়ে যায় আর সময় ও কম লাগে। তাই মানুষ এখন Google কে বেশি আপন করে নিয়েছে।

Ad

শুধুমাত্র আমরা যে গুগেল এর মাধ্যমে নিজেদের সকল প্রয়োজনীয় জিনিস সার্চ করি সেটা নয়। এছাড়াও আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত আরও অনেক ধরণের অ্যাপ আমরা ব্যবহার করে থাকি সেই সকল অ্যাপও গুগেলের তৈরি। যেমন – Youtube, Drive, Ad Sense, Lens, News, G Pay, Maps এই সকল অ্যাপও গুগেলের তরফে মানুষের সুবিধার জন্য বানানো হয়েছে।

Google এর ফুল ফর্ম হলো গ্লোবাল অর্গানাইজেশন অফ ওরিয়েন্টেড গ্রুপ ল্যাঙ্গুয়েজ অফ আর্থ ( Global Organization of Oriented Group Language of Earth). এবার চলুন আমরা জেনে নেই গুগল এর লোগো তে কেন এই চারটি রঙ ব্যবহার করা হয়। গুগল এর লোগো পৃথিবীর সর্বাধিক পরিচিত লোগো গুলির মধ্যে অন্যতম।

কোন বিশেষ ঘটনা বা দিনের ঐতিহাসিক গুরুত্ব অনুসারে ওয়েবসাইটের হোম পেজে গুগল লোগো প্রায়ই বদলাতে দেখে থাকবেন। এছাড়াও প্রতি বছরই সামান্য হলেও বদলায় এই লোগোর নক্সা। ১৯৯৭ সালের পর থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে বেশ কয়েকবার সূক্ষ্ম পরিবর্তন করা হয়েছে ‘গুগল’ লেখাটির ধরন এবং সজ্জার। কিন্তু কখনো এই চারটি রঙ বদলায় না।

রুথ কেদার নামের একজন আমেরিকান গ্রাফিক ডিসাইনার গুগলের লোগোটি তৈরি করেন। সেই গ্রাফিক ডিসাইনার এর কথা হলো, গুগল লোগোর জন্য এই চারটি প্রাথমিক রঙকেই বেছে নিয়েছেন। এই চারটি রঙ সাধারন এবং সব থেকে উজ্জ্বল সবার চোখেও পরবে। কিন্তু তিনি গ্রাফিক ডিসাইন এর বিজ্ঞানসম্মত রঙের ক্রম অনুযায়ী সাজাননি।

Government Subsidy (পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ভর্তুকি)

গুগল শব্দের ছটি অক্ষরের মধ্যে ১, ২, ৩ ও ৫ নম্বর স্থানে রয়েছে প্রধান রঙ চারটি। আর ৪ এবং ৬ স্থানে রয়েছে পুনরাবৃত্ত শুরুর রঙের ক্রম- প্রথমে নীল, তারপর লাল। যখন আমরা পেইন্টিং এর দিক থেকে চিন্তা করব লাল, হলুদ এবং নীল হল মৌলিক রং। আবার যদি আমরা আলোর রঙের কথা বিবেচনা করি তাহলে লাল, সবুজ এবং নীল হল মৌলিক রং।

Investment Tips – LIC না Mutual Fund, কোনটায় বিনিয়োগে আপনার বেশি লাভ দেখুন।

চারুকলায় তিনটি প্রাথমিক রঙের অস্তিত্বের কথা বলা হয়েছে- নীল, লাল এবং হলুদ। গুগলের শুরুর তিনটি অক্ষরেও যা অনুসরণ করা হয়েছে। তবে সবুজ রঙ কেন? কারণ, ডিজিটালি কোন কিছু তৈরির সময় প্রাথমিক রঙের ক্রম একটু আলাদা। আমাদের চোখের সুবিধের জন্যই ডিজিটাল রঙের ক্ষেত্রে আলোর রঙের স্কেল ধরা হয়, যেখানে RGB Red, Green, Blue হল এই সব কিছুর প্রাথমিক রঙ।

Old Note Sell – পুরনো 5 টাকার নোটে এই ছবি থাকলেই লক্ষী লাভ! রাতারাতি লাখ টাকা পাওয়ার

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(102) ""