স্কলারশিপ

আবেদন করুন পিএম স্কলারশিপে এবং পেয়ে যান সর্বোচ্চ ৩৬ হাজার টাকা

Adv

সমগ্র ভারতের বিভিন্ন ক্ষেত্রের ছাত্র-ছাত্রীদের কথা মাথায় রেখে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে নানা প্রকার প্রকল্প কার্যকরী করা হয়ে থাকে। এই সমস্ত প্রকল্পের অধীনে ছাত্র-ছাত্রীরা প্রতি বছর অনুদান পেয়ে থাকেন যার মাধ্যমে তারা তাদের উচ্চশিক্ষার পথ প্রশস্ত করতে পারেন এবং নিজেদের ভবিষ্যৎ নিজেরা সুরক্ষিত করতে পারেন। আর কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ছাত্র-ছাত্রীদের যেসমস্ত স্কলারশিপগুলি দেওয়া হয়ে থাকে, তার মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য একটি স্কলারশিপ হলো পিএম স্কলারশিপ স্কিম। আর আজ আমরা এই বিশেষ স্কলারশিপটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য নিয়ে হাজির হয়েছি।

এই স্কলারশিপে আবেদনের ক্ষেত্রে আবশ্যিক যোগ্যতা কি কি?
১. পিএম স্কলারশিপ স্কিম-এর অধীনে অনুদানের জন্য কেবলমাত্র প্রাক্তন সৈনিক এবং প্রাক্তন কোস্ট গার্ড কর্মীদের পরিবারের সদস্যরাই আবেদন জানাতে পারবেন।
২. এই স্কলারশিপের অধীনে আবেদনের ক্ষেত্রে যেকোনো ছাত্র অথবা ছাত্রীকে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে ডাক্তারি, ইঞ্জিনিয়ারিং, এমবিএ, ডেন্টাল, এমসিএর মত প্রফেশনাল কোর্সে কিংবা যেকোনো টেকনিক্যাল ডিগ্রী কোর্সে পাঠরত হতে হবে।
৩. আবেদনকারী শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

Ad

রাজ্য সরকার চালু করলো নতুন প্রকল্প। বেকার যুবক-যুবতীরা প্রত্যেক মাসে পাবে ৫০০০ টাকা

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক আপনারা কিভাবে স্কলারশিপের অধীনে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করবেন:-
১. এই স্কলারশিপের অধীনে নাম নথিভুক্তকরণের ক্ষেত্রে পড়ুয়াদের প্রথমে কেন্দ্রীয় সৈনিক বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://ksb.gov.in/ -এ যেতে হবে।
২. এরপর আপনার সামনে যে পেজটি আসবে তাতে আপনাকে রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে। যদি ইতিপূর্ব রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়ে থাকে তবে পুনরায় আর তা করার প্রয়োজন নেই।
৩. রেজিস্ট্রেশনের পর আপনাকে যে আইডি এবং পাসওয়ার্ডটি দেওয়া হবে তার মাধ্যমে আপনাকে লগইনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হবে।
৪. লগইনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হলে আপনার সামনে যে পেজটি আসবে তাতে অ্যাপ্লাই নাও অপশনে ক্লিক করলেই আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ফর্মটি চলে আসবে ।
৫. এরপর ওই ফর্মটিতে প্রয়োজনীয় সমস্ত তথ্যগুলি সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় সমস্ত নথিগুলি সঠিকভাবে আপলোড করে সাবমিট অপশনে ক্লিক করলেই আবেদনের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হবে।

অনুদান:- পিএম স্কলারশিপ স্কিমের অধীনে ছাত্রদের প্রতি বছরে ৩০ হাজার টাকা এবং ছাত্রীদের প্রতি বছরে ৩৬ হাজার টাকা প্রদান করা হয়ে থাকে।

আবেদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নথি:-
১. আবেদনকারী শিক্ষার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতার সমস্ত প্রমাণ পত্র।
২. HOO এর তরফে ইস্যু করা সার্ভিং সার্টিফিকেট।
৩. রাজ্য সরকারের তরফ ইস্যু করা শংসাপত্র (কোন ক্ষেত্রে যদি কোনো কর্মী সন্ত্রাসবাদী কিংবা জঙ্গি অথবা নকশাল হামলায় মারা গিয়ে থাকেন তবে)।
৪. পিপিও কিংবা ডিসচার্জ সার্টিফিকেট অথবা বই (A থেকে শুরু করে F ক্যাটাগরির জন্য)।
৫. আবেদনকারীর আধার কার্ড এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সমস্ত ডিটেইলস। (যদি কোন আবেদনকারী নিজস্ব অ্যাকাউন্ট না থাকলে থাকে তবে পিতা অথবা মাতার অ্যাকাউন্টের ডিটেইলস জমা দিতে হবে)।
৬. বীরত্ব পুরস্কারে শংসাপত্র (বীরত্ব পুরস্কার পেয়ে থাকলে তবেই প্রযোজ্য)।
৭. প্রতিবন্ধী সার্টিফিকেট।
৮. মৃত কর্মীদের ক্ষেত্রে ডেথ সার্টিফিকেট।

আবেদনের সময়সীমা:-
বর্তমানে পিএম স্কলারশিপ স্কিমের অধীনে আবেদনের প্রক্রিয়া চলছে। চলতি মাসের ৩০ তারিখ অর্থাৎ ৩০শে ডিসেম্বর ২০২২ তারিখ পর্যন্ত আবেদনের প্রক্রিয়া কার্যকরী থাকবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(97) ""