প্রকল্প

জানুয়ারি মাসের লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা কবে পাবেন জেনে নিন এখনই।

Adv

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের তরফে কার্যকরী লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্প বরাবরই রাজ্যের নাগরিক তথা ওয়াকিবহাল মহলের ব্যক্তিদের মধ্যে চর্চিত হয়েছে। আর নতুন বছরেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। তবে এবারে লক্ষ্মীর ভান্ডারের অনুদানের টাকা নিয়ে নাগরিকদের মধ্যে নানা ধরনের গুঞ্জন শুরু হয়েছে। ২০২৩-এর জানুয়ারি মাসের অর্থাৎ চলতি মাসের অনুদানের টাকা এখনও পর্যন্ত নাগরিকদের অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করা হয়নি। আর তা নিয়েই নানাপ্রকারের প্রশ্ন উঠছে পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ জনগণের মধ্যে।

তবে সাধারণ নাগরিকদের প্রশ্ন এখানেই থেমে নেই। বিভিন্ন সূত্রের মারফত খবর পাওয়া গিয়েছে যে, নতুন বছরে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের অধীনে অনুদানের টাকা বাড়ানো হবে কিনা তা নিয়েও নানা প্রকার প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্যের নাগরিকরা। আর এই সমস্ত বিষয়গুলি নিয়ে বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে নানাধরনের খবর পাওয়া যাচ্ছে, যার কারণে সাধারণ মানুষকে বারংবার বিভ্রান্ত হতে হচ্ছে। ফলত আজকের এই পোস্টে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের অধীনে অনুদানের টাকা কবে পাওয়া যাবে, অনুদানের টাকা আদৌও বাড়ানো হবে কিনা তা নিয়ে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করা হবে।

Ad

বিভিন্ন সূত্রের তরফে দাবি করা হয়েছে যে, এই জানুয়ারি মাসের অর্থাৎ চলতি মাসের ১৫ তারিখের পর থেকেই রাজ্যের গৃহবধূদের অ্যাকাউন্টে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের অনুদানের টাকা ট্রান্সফার করার প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। যদিও রাজ্য সরকারের তরফে এই বিষয়ে অফিশিয়াল ভাবে কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। কিন্তু বিগত বছরে যে সময়ে লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা রাজ্যের গৃহলক্ষ্মীদের অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করা হয়েছে সেদিকে নজর রেখেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে কর্তা ব্যক্তিরা এই দাবি করেছেন।

জিও লঞ্চ করলো নতুন অফার। এক রিচার্জে চলবে ৯০ দিন। রোজ পাওয়া যাবে ২ জিবি করে আনলিমিটেড ডেটা

এর পাশাপাশি লক্ষ্মীর ভান্ডারের অনুদান বাড়ানো সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তরে বলতে হয়, লক্ষ্মীর ভান্ডারের অনুদান বাড়ানো নিয়ে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে কোনোরকম নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়নি। অর্থাৎ আগামী দিনেও লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের আওতায় বিগত বছরের মতোই জেনারেল এবং ওবিসি শ্রেণীভুক্ত মহিলাদের ৫০০ টাকা করে অনুদান দেওয়া হবে। অন্যদিকে, তপশিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত মহিলাদের ১০০০ টাকা করেই অনুদান প্রদান করা হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ইতিপূর্বে ২০২২ সালের নভেম্বর এবং ডিসেম্বর মাসে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় যে দুয়ারে সরকার প্রকল্পের আয়োজন করা হয়েছিলো তাতে যেসমস্ত মহিলা বিধবা ভাতার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন তারা আগামী দিনে বিধবা ভাতা এবং লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা একত্রে পাবেন। সুতরাং, তারা এই দুটি প্রকল্পের অধীনে একসাথে অতিরিক্ত টাকা পেতে চলেছেন। তবে যেসমস্ত মহিলাদের নাম বিধবা ভাতা প্রকল্পের আওতায় নেই তারা কোনোভাবেই কোনো অতিরিক্ত টাকা পাবেন না, এমনটাই জানা গিয়েছে রাজ্য সরকারের তরফে কার্যকরী নির্দেশিকায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(113) ""