চাকরি

Para Teacher Salary – পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ব শিক্ষকদের সুখবর, বেতনবৃদ্ধি স্থায়ীকরণ ও পদোন্নতি নিয়ে নবান্নের ঘোষণা।

Adv

দীর্ঘ দিন ধরে আটকে থাকা শিক্ষকদের (Para Teacher Salary) পদোন্নতি নিয়ে রাজ্য সরকারের তরফে চিন্তাভাবনা শুরু করা হল। রাজ্য সরকারের (Government Of West Bengal) জারি করা শিক্ষানীতি (WB State Education Policy) অনুসারে এই কাজ করা হবে বলে জানানো হয়েছে। রাজ্যে কয় জন পার্শ্ব শিক্ষক রয়েছেন এবং তারা কি পদ্ধতিতে কাজ করছেন? এই সকল কিছু ওপরে নির্ভর করে এই সকল শিক্ষকদের (School Teachers) এই পদোন্নতি করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

Para Teacher Salary Will Increase Very Soon.

অনেক দিন ধরেই সহকারী শিক্ষকদের (Para Teacher Salary) মর্যাদা চেয়ে এসেছেন প্যারা টিচার বা পার্শ্ব শিক্ষকেরা। কিন্তু এতদিন পরে এই সম্পর্কে চিন্তা ভাবনা শুরু করা হয়েছে বলে খুশি সকলে। তাদের মূল দাবি হল সহকারি শিক্ষকদের (Assistant Teachers) সমান কাজ করলেও তাদের মাইনে অনেক কম এবং অনেক ধরণের সুযোগ সুবিধা থেকেও এনারা বঞ্চিত হচ্ছেন।

Ad

পশ্চিমবঙ্গের সকল স্কুলে (West Bengal Schools) ঠিক কয়জন পার্শ্ব শিক্ষক রয়েছেন এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য সরকারের তরফে একটি সার্ভে অনুষ্ঠিত করা হবে। কিভাবে এই সকল শিক্ষকদের (Para Teacher Salary) পদোন্নতি (Promotion) করার মাধ্যমে সহকারী শিক্ষকদের সমতুল্য করে তোলা সম্ভব। এমনই নিয়ম রাজ্যের তৈরি শিক্ষানীতিতে (Education Policy) জানানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

আর এই বিষয়টিকে অনেকেই সাধুবাদ জানিয়েছেন এবং এরই সঙ্গে রাজ্যের অনেক শিক্ষক ও অধ্যাপক (Para Teacher Salary) দের বক্তব্য অনুসারে, সরকারের তরফে খুবই ভালো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু সঠিক ভাবে এই সকল পার্শ্ব শিক্ষকদের ট্রেনিং দেওয়া জরুরি বলেও জানানো হয়েছে। এছাড়াও আরও অনেক শিক্ষকদের মত অনুসারে।

TET Scam (পশ্চিমবঙ্গে টেট দুর্নীতি)

পার্শ্ব শিক্ষকদের পদোন্নতি করা হচ্ছে সেটা খুবই ভালো কথা কিন্তু কখনই যেন স্থায়ী শিক্ষকদের (Para Teacher Salary) শূন্যপদের সংখ্যা যেন না কমানো হয় নইলে ফের কোন সমস্যা না দেখা যায়। কিন্তু ঠিক কবে থেকে এই ধরণের সার্ভের কাজ করা শুরু হবে সেই সম্পর্কে সরকারের তরফে এখনো পর্যন্ত স্পষ্ট করে কিছুই জানানো হয়নি।

DA Hike – ডিএ বাড়ছে সরকারি কর্মীদের, রাজ্য সরকারের নির্দেশে খুশি সকলে।

পশ্চিমবঙ্গের প্যারা টিচারদের (Para Teacher Salary) জন্য এই সিদ্ধান্ত অনেকেই মনে করছেন আগামী বছরের লোকসভা ভোটের আগেই কার্যকর করার চেষ্টা করা হবে বলে জানানো হয়েছে। কারণ পশ্চিমবঙ্গে সকল প্রকারের শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে অনেক ধরণের স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছে, এই জন্য সরকারের তরফে নিজেদের ভাবমূর্তি পরিষ্কার করার জন্য এই কাজটি করা হতে পারে।

Interest Rate – গ্রাহকদের কথা ভেবে আবারও সুদের হার বাড়ালো জনপ্রিয় এই রাষ্ট্রয়ত্ব ব্যাংক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(96) ""