ট্রেন্ডিং

Traffic Rule – তাপপ্রবাহের কারণে গাড়ি চালকেরা এই ভুল করলেই, রাস্তায় মোটা টাকা ফাইন কাটবে।

Adv

ট্রাফিকের নিয়ম (Traffic Rule) অনেক আছে। যারা প্রতিদিন গাড়ি নিয়ে বের হন তাদের এই সব নিয়ম মেনেই গাড়ি চালাতে হয়। এই সব নিয়ম না মানলেই হতে পারে শাস্তি এবং দিতে হতে পারে জরিমানা (Traffic Fine). আজ আপনাদের সাথে এমন একটি ট্রাফিক আইন নিয়ে জানাব যা অনেকেই জানেন না আবার অনেকে জেনেও সেই কাজ করছে। এর ফলে পুলিশ দেখলেই দিতে হচ্ছে জরিমানা। কি সেই ট্রাফিক আইন (Traffic Rule) দেখে নিন।

Traffic Rules During Heat Wave For Car & Bikes.

গরমের মাত্রা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে। অতিরিক্ত গরমে নাজেহাল সবাই। গরম থেকে বাঁচার জন্য মানুষ নানা রকমের পথ অবলম্বন করছে। গরমের কারনে বাড়িতে বেশিরভাগ মানুষ AC, এয়ার কুলার ব্যবহার করছে। আর পথে বেরলে রোদের হাত থেকে বাঁচার জন্যে মানুষ এমন কিছু কাজ করছে যা ট্রাফিক আইন (Traffic Rule) বিরুদ্ধ। দেশের প্রায় প্রচুর মানুষেরই চার চাকার গাড়ি আছে।

Ad

এর মধ্যে বেশিরভাগ চার চাকার মালিক গরমের হাত থেকে বাঁচার জন্যে গাড়ির কাঁচের জানলায় ব্ল্যাক ফিল্ম বা ডার্ক ফিল্ম লাগাচ্ছে। কিন্তু এমন অনেকেই আছে যারা জানেনা গাড়িতে ব্ল্যাক ফিল্ম লাগানো আইন বিরুদ্ধ। এই জন্য রাস্তায় বেরলে পুলিসের চোখে পড়লেই মোটা অঙ্কের জরিমানা (Traffic Rule Fine) দিতে হবে গাড়ির মালিককে।

সাধারণত গাড়ির কাঁচ দিয়ে বাইরের সূর্যের তাপ গাড়ির ভেতরে ঢুকলে গাড়ির ভেতর গরম হয়ে যায়। দিনের বেলায় AC চালালেও তার ঠান্ডা কোনো অনুভুতি হয় না। কিন্তু যদি গাড়ির কাঁচে ব্ল্যাক ফ্লিম বসানো যায় তাহলে বাইরের রোদের তাপ ভেতরে প্রবেশ করতে পারবেনা আর গাড়ির ভেতরটা ঠান্ডা থাকবে (Traffic Rule). এই সমস্যা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে দেখা দিচ্ছে।

মানুষ ট্রাফিক নিয়ম (Traffic Rule) ভুলে গাড়ির কাঁচে দেদার বসাচ্ছে ব্ল্যাক ফ্লিম। এর ফলে রাস্তায় বেরলে পুলিশ এর কাছে জরিমানা দিতে হচ্ছে। দেশের ট্রাফিক আইনে বলা হয়েছে, গাড়ির সামনে ও পিছনের গ্লাসের যে উইন্ডশিল্ড রয়েছে তার দৃশ্যমানতা হতে হবে ৭০ শতাংশ এবং ৫০ শতাংশ। কোনো কারনে যদি দৃশ্যমানতা এর থেকে কমে যায় তাহলে তা আইনত দন্ডনিয় অপরাধ।

এছাড়া গাড়ির কাঁচের দৃশ্যমানতা যদি এর থেকে কমে যায় তাহলে গাড়ির চালকেরও ঝুঁকির সম্ভাবনা বেশি থাকে। কারন এর ফলে দুর্ঘটনা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। এক ধারে এটি যেমন আইন বিরুদ্ধ তেমনই সুরক্ষার জন্য ক্ষতিকারক। কিন্তু গরম থেকে বাঁচতে মানুষ যেভাবে মাত্রাতিরিক্ত হারে ডার্ক ফিল্ম (Traffic Rule) বসাচ্ছে, তাতে উদ্বেগ বাড়ছে সরকারের।

Transaction Limit (টাকা তোলার লিমিট)

How Much Fine You Will Give For Break This Traffic Rule?

সূত্রের খবর, যখনই রাস্তায় দেখা যাচ্ছে গাড়ির কাঁচে ব্ল্যাক ফ্লিম বসান আছে তখনই গাড়ি থামিয়ে জরিমানা চাওয়া হচ্ছে। গাড়ির কাঁচে ব্ল্যাক ফ্লিম লাগলে 10 হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হয়। কিন্তু সেখানে গাড়ির কাঁচে ব্ল্যাক ফ্লিম লাগাতে খরচ হয় 200 থেকে 300 টাকা। কিন্তু গরম থেকে বাঁচতে এই পদক্ষেপ নিলে পকেট থেকে খরচ হতে পারে 10 হাজার টাকা।

100 টাকার নোট নতুন রূপে আসতে চলেছে? RBI এর সিদ্ধান্তে গুঞ্জন দেশজুড়ে।

তাই গাড়ির কাঁচে ব্ল্যাক ফিল্ম লাগানোর আগে একবার ভাবুন। আর শুধু এই কারণ নয় আমাদের দেশে সাময়িক স্বস্তি পাওয়ার জন্য অনেকেই এই Traffic Rule বা ট্রাফিক নিয়ম না মেনে নিজেদের ইচ্ছামত কাজ করে থাকেন। এই কাজটি একদমই উচিত নয় একজন দায়িত্ববান নাগরিক হিসাবে। আর এই কারণের জন্য আমাদের সকলের উচিত এই ধরণের নিয়ম পালন করা।
Written by Ananya Chakraborty.

টাকার দরকার হলে কারোর কাছে হাত পাতবেন না। আধার কার্ড থাকতে কোন চিন্তাই নেই।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(109) ""