টেট

SSC Recruitment Scam – যেই সকল যোগ্য প্রার্থীদের চাকরি গেল। তাদের জন্য পরবর্তী পদক্ষেপ সম্পর্কে জানুন।

Adv

লোকসভা নির্বাচনের মধ্যে বড় ধাক্কা রাজ্য সরকারের। গতকাল SSC নিয়োগ এর মামলার রায় দান ছিল (SSC Recruitment Scam). আর সেই রায় দান গিয়েছে রাজ্য সরকারের বিপক্ষে। আর এই রায়তে চাকরিহারা হয়েছে প্রায় 26 হাজার। বহু প্রতিক্ষিত এই মামলার অবশেষে শুনানি হল। আন্দোলনকারীদের এতো বছরএর আন্দোলন অবশেষে সফল হল। কি রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court) চলুন দেখে নিন (Staff Selection Commission).

SSC Recruitment Scam New Recruitment Within 15 Days Update.

আদালতের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, 2016 সালের SSC এর প্যানেলের মাধ্যমে স্কুলে নিয়োগ হয়েছিল তা সম্পূর্ণ অবৈধ তাই এই 2016 সালের গোটা প্যানেলই বাতিল (SSC Recruitment Scam) করে দিয়েছে আদালত। এরফলে চাকরি বাতিল হয়েছে প্রায় 26 হাজার জনের। গ্রুপ C, গ্রুপ D, নবম ও দ্বাদশ শ্রেনীর সম্পূর্ণ নিয়োগ অবৈধ। তাহলে এবার বড় প্রশ্ন হল যারা যোগ্য প্রার্থী তাদের কি আর চাকরি পাওয়ার সুযোগ হবে না? তাদের কি হবে?

Ad

আদালতের নির্দেশ অনুসারে, এই পরীক্ষায় যে 23 লক্ষ পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় বসেছিলেন তাদের সবার OMR Sheet আবার চেক করা হবে। তারপরে নতুন করে মেধাতালিকা প্রকাশ করা হবে, এই নির্দেশ দিল আদালত (SSC Recruitment Scam). অনেকেই মনে করছেন প্রাক্তন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের (Justice Abhijit Ganguly) অতিতের নিয়োগ মামলার রায় গুলোকেই মান্যতা দিল আদালত।

এই গ্রুপ C, গ্রুপ D, নবম – দ্বাদশ ও একাদশ – দ্বাদশ শ্রেনীর 24 হাজারে বেশি শূণ্য পদে নিয়োগের দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। তখন বিচারপতি ছিলেন অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় তিনি সেই সময় নির্দেশ দিয়েছিলেন চাকরি বাতিলের। ওই নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিয়ে হাইকোর্টের বিশেষ বেঞ্চে মামলাটি ফেরত পাঠায় সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court Of India) বিশেষ বেঞ্চকে 6 মাসের মধ্যে শুনানি (SSC Recruitment Scam) শেষ করতে বলেছিল আদালত।

সেই মত গত সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ওই মামলা গুলোর (SSC Recruitment Scam Case) শুনানি শুরু হয়। প্রায় সারে তিন মাস ধরে টানা এই মামলার শুনানি হয়েছে বিচারপতি দেবাংশু বসাক এবং বিচারপতি শব্বর রসিদির ডিভিশন বেঞ্চে। তারপরই গতকাল হাইকোর্ট এই নির্দেশ দেয়। নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে গাজিয়াবাদে নাইসারের এক আধিকারিক পঙ্কজ বনসলের বরিতে হানা দেয় CBI.

আর তার ফলে সেখান থেকে তথ্য মিলেছিল অনেক। এই নাইসাই গ্রুপ C নিয়োগে OMR Sheet তৈরি করেছিল। নিয়োগ দুর্নীতি কাণ্ডে তদন্তে নেমে গাজিয়াবাদে নীলাদ্রির বাড়ি থেকে পাওয়া যায় তিনটি হার্ড ডিস্ক, এতে OMR শিট এর স্ক্যান করা কপি ছিল। সেই হার্ড ডিস্কে প্রায় 50 লক্ষ পাতার মত স্ক্যান করা কপি ছিল OMR এর। আদালত নির্দেশ দিয়েছে নতুন করে আবার এই সব OMR শিট গুলো চেক করা হোক।

নাইসার OMR Sheet স্ক্যান করা নম্বরের সাথে মিলিয়ে দেখা হবে SSC এর নম্বর। তারপরে OMR শিটের নম্বরের সাথে যোগ হবে একাডেমিক স্কোর ও মৈখিক ইন্টারভিউের নম্বর। এই সব ঠিক মত চেক করার পির নতুন প্যানেল প্রকাশ করা হবে। এই নতুন প্যানেলে যে সব চাকরি প্রার্থীদের নাম থাকবে তাদের নতুন করে নিয়োগপত্র (SSC Recruitment Scam) দেওয়া হবে।

OMR Sheet এর পুর্নমূল্যায়নের জন্যে ওপেন টেন্ডার ডাকা হবে স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফ থেকে। সেখানে উল্লেখ করতে হবে যোগ্যতা, অন্যান্য নিয়ম ও শর্তাবলির। পুর্নমূল্যায়নের পর অবিলম্বে যোগ্য প্রার্থীদের চাকরিতে নিয়োগ করতে হবে। হাইকোর্টের নির্দেশ মত, SSC কে 2016 এর OMR শিট গুলো আপলোড করতে হবে। টেন্ডার ডেকে সেই 23 লক্ষ পরীক্ষার্থীর OMR শিট আবার মুল্যায়ন করার জন্য অন্য সংস্থাকে দ্বায়িত্ব দেওয়া হবে নাইসা কে আর দেওয়া হবে না দ্বায়িত্ব। (SSC Recruitment Scam).

Employee Benefits (সরকারি কর্মীদের সুবিধা)

তাদের মুল্যায়নের ভিত্তি নতুন করে প্যানেল তৈরি করা হবে। সেই সাথে যোগ করা হবে মৌখিক পরীক্ষার নম্বর। তার ভিত্তিতেই যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা তৈরি হবে। কোর্টের নির্দেশ মত, নিয়োগ দুর্নীতির (SSC Recruitment Scam) তদন্ত চালিয়ে যাবে CBI. যাকে প্রয়োজন তাকেই হেফাজতে নিতে পারবে CBI আধিকারিকরা। 281 পাতার নির্দেশ রয়েছে 370 টি অনুচ্ছেদে। সেই নির্দেশ (SSC Recruitment Scam) সামনে এলে আর ভালো মত বোঝা যাবে।

আরও কমলো সোনার দাম পশ্চিমবঙ্গে। নতুন দাম শুনে খুশি গরীব ও মধ্যবিত্ত।

তবে হাইকোর্টের এই চাকরি বাতিলের (SSC Recruitment Scam) নির্দেশকে বিরোধিতা করেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি (WB CM Mamata Banerjee). তিনি চাকরিহারাদের পাশে থেকে বলেছেন তিনি সুপ্রিম কোর্টে যাবেন, তিনি চাকরিহারাদের পাশে আছে। তাদের চিন্তা করতে হবে না। SSC Recruitment Scam নিয়ে আগামীদিনে কি হতে চলেছে সেই দিকে নজর সকলের।
Written by Ananya Chakraborty.

শিক্ষক নিয়োগ মামলায় ঐতিহাসিক রায়। প্রায় ২৬০০০ চাকরি গেল। সাথে বেতন ও ফেরত দিতে হবে!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(94) ""