টেট

Primary TET – 2017 প্রাথমিক টেট নিয়োগ নিয়ে বড় খবর। শিক্ষকদের কপালে চিন্তার ভাঁজ!

Adv

কিছুদিন আগেই 2016 সালের শিক্ষক নিয়োগ মামলার (Primary TET) রায় দিল কলকাতা হাইকোর্ট (Calcutta High Court). আর এই রায় দেওয়ার পর আরো বেশি আন্দোলন শুরু হয়েছে রাজ্য জুড়ে। কারন আযোগ্য শিক্ষিকদের খুঁজতে গিয়ে 2016 সালের গোটা প্যানেলটাই বাতিল করতে হয়েছে আদালতকে। এর ফলে যারা যোগ্য শিক্ষক তাদের ও চাকরি চলে গিয়েছে।

WBBPE Primary TET 2017 Teacher Recruitment Verdict.

এরই মাঝে 2017 সালের প্রাথমিক নিয়োগে দুর্নীতির (Primary TET Scam) অভিযোগ উঠল কলকাতা হাইকোর্টে। কি নিয়ে অভিযোগ উঠলো চলুন দেখে নিন বিস্তারিত। 2014, 2016 আর এবার 2017 সালের প্রাথমিক নিয়োগ (Primary TET) নিয়ে বড় খবর সামনে এলো। এর ফলে এই সালের পরীক্ষায় পাস করে নিয়োগ হওয়া শিক্ষকদের রাতের ঘুম উরে গেল।

Ad

লোকসভা নির্বাচনের মাঝেই রাজ্য শিক্ষক ও গ্রুপ সি, গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগ নিয়ে একের পর এক অভিযোগ সামনে আসছে। এর ফলে চপের মুখে রাজ্য। 2014 সালের প্রাথমিক নিয়োগে OMR দুর্নীতি অভিযোগ ওঠে। 2016 সালে নবম দশম, একাদশ দ্বাদশ, গ্রুপ সি, গ্রুপ ডি কর্মী নিয়োগে প্যানেলে উত্তীর্ণ হওয়ার পরে নিয়োগ সংক্রান্ত অভিযোগ ওঠে। এবার 2017 সালের নিয়োগে (Primary TET) প্রশ্ন ভুল নিয়ে মামলা উঠল বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার বেঞ্চে।

গত মঙ্গলবার 2017 এর প্রাথমিক নিয়োগের (Primary TET) প্রশ্ন পত্রে ভুল থাকার মামলা দায়ের হয়। এই মামলার শুনানিতে জাস্টিস মান্থা জানিয়েছেন, 1 দিন সময় দেওয়া হল সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্যে। যদি সত্যি প্রশ্নপত্রে ভুল থাকে তাহলে সবাইকে সেই প্রশ্নের জন্য নম্বর দিতে হবে। আর তাই প্রশ্নপত্র ভুলের অভিযোগ যাচাই করার নির্দেশ দেয় বিচারপতি।

সেই নির্দেশ মত একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের নির্দেশ দেয় বিচারপতি। টেটের (Primary TET) ভুল প্রশ্নের বিষয়টি দেখবে বিশ্ব ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের গঠন করা কমিটি। আগামী এক মাসের মধ্যে এই নিয়ে রিপোর্ট পেশ করতে হবে হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কাছে। এর আগে 2014 সালের পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ভুল থাকায় বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়কে দ্বায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল প্রশ্নপত্র যাচাই করার।

আর তাতে 6টি প্রশ্ন ভুল বেরিয়েছিল। তাই এই 6টি ভুল প্রশ্নের জন্য পরীক্ষার্থীদের নম্বর দেওয়া হয়। তবে এবার 2017 সালের প্রশ্নপত্রে 21 টি প্রশ্ন ভুলের অভিযোগ উঠেছে। মূলত বাংলা, পরিবেশ বিদ্যা সহ মত 3টি বিষয় রয়েছে। এই প্রশ্নে ভুল গুলো আগে চিহ্নিত করতে হবে। তারপর পরীক্ষার্থীদের উত্তর মিলিয়ে নেওয়া হবে। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ (West Bengal Board Of Primary Education) যে প্রশ্ন তৈরি করেছিল, তার উত্তর ও বিশেষজ্ঞদের উত্তর মিলিয়ে দেখা হবে (Primary TET).

DA Hike News (মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধির খবর)

এর আগে বিচারপতি মান্থা মামলাকারীদের আবেদন শুনে অসন্তোষের সুরেই বলেছিলেন, একটা প্রশ্নপত্রে এতো ভুল থাকে কি করে? পরীক্ষার্থীরা কি আইনস্টাইন হয়ে ভুল প্রশ্ন আবিষ্কার করে সঠিক উত্তর দেবে? 2017 সালের প্রশ্ন বিভ্রাটের এই মামলায় (Primary TET) এবার বিশ্বভারতী কী রিপোর্ট দেয় তার উপর ভাগ্য ঝুলে রয়েছে হাজার হাজার প্রাথমিক শিক্ষকদের।

গরমের ছুটিতে ক্লাস হবে। পড়ুয়াদের জন্য অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হল।

এই মামলার (Primary TET Case) পরের শুনানি রয়েছে জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে। আর এই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে অনেক ধরণের সমস্যা দেখা গেছে। এবারে দেখার অপেক্ষা যে এই নিয়ে কি সিদ্ধান্ত হতে চলেছে। আর অনেক শিক্ষক মনে করছেন SSC এর মত তাদেরও চাকরি যেন বাতিল না হয়ে যায় হাইকোর্টের নির্দেশে। এই সম্পর্কে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন।
Written by Ananya Chakraborty.

বাতিল হবেনা শিক্ষকদের চাকরি? মুখ্যমন্ত্রীর পদক্ষেপ। সুপ্রিম কোর্ট 5 মিনিটে স্থগিতাদেশ দেবে!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

string(104) ""